ঢাকা ১০:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি নিউ স্টার ফুটবল ক্লাব রতনপুরের সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম সংবর্ধিত বালাগঞ্জে শান্তিপুর্ণভাবে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন : চমক দেখিয়ে আনহার মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত ফ্রান্সে বাংলাদেশি অভিবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে ফরাসি জাতীয়তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন

অনিয়মিতদের নিয়মিত করার দাবিতে প্যারিসে দ্বিতীয় বারের মত মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত

  • আপডেট সময় ১১:০৯:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০
  • ১৫৫ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

মিছিল এবং মুহুর্মুহু শ্লোগানের মধ্য দিয়ে অনিয়মিতদের বৈধতার দাবিতে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে দ্বিতীয়বারের মত সফল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো। আজ (২০ জুন, শনিবার) প্যারিসের প্লাস দো লা নেশন এলাকায় ফ্রান্সের দুই শতাধিক সামাজিক সংস্থার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই সমাবেশে ফরাসীসহ সারা বিশ্বের বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়। উল্লেখ্য, এই আন্দোলনে বাংলাদেশ কমিউনিটি ভিত্তিক বিভিন্ন গ্রুপ ও সংগঠনসহ বিপুলসংখ্যক ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা অংশ নেয়। এই যৌথ নেতৃত্বের আয়োজনে বিসিএফ এর ভাইস প্রেসিডেন্ট নয়ন এনকে এশিয়া অঞ্চলের সমন্বয়ক হিসেবে ভূমিকা পালন করে। পাশাপাশি শ্রমিক গ্রুপের ওবায়দুল্লাহ কয়েসও বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

পূর্বনির্ধারিত সময়ের অনেক আগে থেকেই প্লাস দো লা নেশন এলাকায় দলে দলে লোক সমাগম হতে থাকে। তাদের হাতে ব্যানার এবং শ্লোগান লেখা ফেস্টুন শোভা পায়। মুহুর্মুহু শ্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে প্রাঙ্গনটি। বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী বাদ্য বাজিয়ে এবং গান গেয়ে দাবির প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করে। দুপুর ২টা বাজার সাথে সাথে মিছিল এগিয়ে যেতে থাকে। মিছিলটি প্যারিস মেট্রো স্টেশন স্টালিংগ্রাদ গিয়ে শেষ হয়। সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে বয়ন এনকে ফরাসী ভাষায় বক্তব্য রাখেন। আর বাংলাদেশীসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান উবায়দুল্লাহ কয়েস।

এসময় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং বিশাল মিছিলটিকে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

বাংলাদেশ কমিউনিটি উক্ত সমাবেশে স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়। বিসিএফ, শ্রমিক গ্রুপ, ইপিএস বাংলা, বরিশাল বিভাগীয় কমিউনিটি, ফ্রঁসে আভেক রাব্বানী, বাংলাদেশি রেমিট্যান্স যোদ্ধাসহ বিভিন্ন সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যানারে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশী অংশগ্রহণ করে।

সমাবেশে বিভিন্ন বক্তারা ফ্রান্সে বসবাসরত অনিয়মিত অভিবাসীদের নিয়মিত করার আহবান জানান এবং এই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, একই দাবিতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন লিয়ন, মার্শেই, লিল, তুলুজসহ ২৩ শহরে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ফ্রান্সে ৪ লাখ অনিয়মিত অভিবাসী রয়েছে বলে ধারনা করা হয়।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি

অনিয়মিতদের নিয়মিত করার দাবিতে প্যারিসে দ্বিতীয় বারের মত মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় ১১:০৯:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুন ২০২০

মিছিল এবং মুহুর্মুহু শ্লোগানের মধ্য দিয়ে অনিয়মিতদের বৈধতার দাবিতে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে দ্বিতীয়বারের মত সফল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো। আজ (২০ জুন, শনিবার) প্যারিসের প্লাস দো লা নেশন এলাকায় ফ্রান্সের দুই শতাধিক সামাজিক সংস্থার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই সমাবেশে ফরাসীসহ সারা বিশ্বের বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়। উল্লেখ্য, এই আন্দোলনে বাংলাদেশ কমিউনিটি ভিত্তিক বিভিন্ন গ্রুপ ও সংগঠনসহ বিপুলসংখ্যক ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা অংশ নেয়। এই যৌথ নেতৃত্বের আয়োজনে বিসিএফ এর ভাইস প্রেসিডেন্ট নয়ন এনকে এশিয়া অঞ্চলের সমন্বয়ক হিসেবে ভূমিকা পালন করে। পাশাপাশি শ্রমিক গ্রুপের ওবায়দুল্লাহ কয়েসও বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

পূর্বনির্ধারিত সময়ের অনেক আগে থেকেই প্লাস দো লা নেশন এলাকায় দলে দলে লোক সমাগম হতে থাকে। তাদের হাতে ব্যানার এবং শ্লোগান লেখা ফেস্টুন শোভা পায়। মুহুর্মুহু শ্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে প্রাঙ্গনটি। বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠী বাদ্য বাজিয়ে এবং গান গেয়ে দাবির প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করে। দুপুর ২টা বাজার সাথে সাথে মিছিল এগিয়ে যেতে থাকে। মিছিলটি প্যারিস মেট্রো স্টেশন স্টালিংগ্রাদ গিয়ে শেষ হয়। সমাপনী বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে বয়ন এনকে ফরাসী ভাষায় বক্তব্য রাখেন। আর বাংলাদেশীসহ সকলকে ধন্যবাদ জানান উবায়দুল্লাহ কয়েস।

এসময় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং বিশাল মিছিলটিকে নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

বাংলাদেশ কমিউনিটি উক্ত সমাবেশে স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নেয়। বিসিএফ, শ্রমিক গ্রুপ, ইপিএস বাংলা, বরিশাল বিভাগীয় কমিউনিটি, ফ্রঁসে আভেক রাব্বানী, বাংলাদেশি রেমিট্যান্স যোদ্ধাসহ বিভিন্ন সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক সংগঠনের ব্যানারে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশী অংশগ্রহণ করে।

সমাবেশে বিভিন্ন বক্তারা ফ্রান্সে বসবাসরত অনিয়মিত অভিবাসীদের নিয়মিত করার আহবান জানান এবং এই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

উল্লেখ্য, একই দাবিতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন লিয়ন, মার্শেই, লিল, তুলুজসহ ২৩ শহরে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ফ্রান্সে ৪ লাখ অনিয়মিত অভিবাসী রয়েছে বলে ধারনা করা হয়।