ঢাকা ১০:২১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব নতুন তত্ত্ব ও জ্ঞান সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্যঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ফ্রান্স দর্পণ পত্রিকার সম্পাদকের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারিসে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইপিএস কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের নবগঠিত কমিটির আত্মপ্রকাশ ফরাসি নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশি শোয়েব বালাগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত রুপালী ব্যাংক লিমিটেড সুলতানপুর শাখার উদ্যোগে প্রকাশ্যে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠিত সাজাপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে বালাগঞ্জ থানায় পুলিশ গহরপুরে কৃতি ফুটবলার লায়েক আহমদ সংবর্ধিত; জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে লেখাপড়ার গুরুত্ব অনুভব করেছি

ইতালিতে ফ্যামিলি ভিসা আবেদেনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

  • আপডেট সময় ০৭:৫০:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮
  • ৩০০৭ বার পড়া হয়েছে

প্রতিকী ছবি

ইতালির ফ্যামিলি ভিসার আবেদন প্রক্রিয়া আরো কঠিন করেছে ইতালি সরকার। আগে ইতালিতে ফ্যামিলি ভিসার আবেদনের ডকুমেন্টস তৈরি না থাকলেও প্রাথমিকভাবে  আবেদন করে পরে সকল ডকুমেন্টস তৈরি করে ইমিগ্রেসন অফিসে যাওয়া যেত। কিন্তু নতুন নিয়মে ফ্যামিলি ভিসার আবেদন করার পূর্বেই সকল ধরনের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস তৈরি করে তারপর আবেদন করতে হবে। পরিবর্তিত নিয়মে ভিসা আবেদনের ধাপ সমূহ

কাজের কন্ট্রাক্ট দিয়ে জমা দেওয়ার ক্ষেত্রেঃ
* আবেদনকারীর কাজের মেয়াদ এক বছরের অধিক হতে হবে অথবা এর নিচেও হতে পারে তবে সে ক্ষেত্রে ফ্যামিলি আনার জন্য ফ্যামিলি সদস্য অনুযায়ী যে পরিমাণ আয় দেখানো প্রয়োজন সে পরিমাণ সময় কাজ করেছেন দেখাতে হবে। উদাহরণ হিসাবে কেবল স্ত্রী আনার ক্ষেত্রে আপনার ৮,৭৩৭ ইউরো বাৎসরিক আয় দেখাতে হবে, তাই এ পরিমাণ আয় আপনার কাজের কন্ট্রাক্ট এর ক্যাটাগরি বা আপনি মাসে বেতন কত করে পাচ্ছেন তার উপর হিসাব করে সে পরিমাণ টাকা আয় করেন দেখাতে হবে। এখন এই আয় ৬ মাসের কাজে হোক বা ১ বছরের কাজে হোক।
* কাজের মালিকের কাছ থেকে মালিকের ডকুমেন্টস এবং সই নিয়ে আসতে হবে আবেদন করার আগেই।
* কাজের প্রতিটি বুস্তাপাগা তথা বেতন রশিদ,অন্তত ১৩ টি রশিদ নিজের সংগ্রহে থাকতে হবে।
* কাজের কন্ট্রাক্ট পেপার যেটা অনলাইনের মাধ্যমে শ্রম মন্ত্রনালয়ে রেজিস্ট্রি হয়েছে সেই কন্ট্রাক্ট পেপার তথা উনি লাভ (UNILAV) সংগ্রহে থাকতে হবে, উল্লেখ্য পূর্বে মালিক পক্ষ লিখিত কন্ট্রাক্ট পেপারে শ্রমিক দের কাজের কন্ট্রাক্ট করাতো এবং আপনাদের সেই কন্ট্রাক্ট এর কাগজ ধরিয়ে দিতো, কিন্তু বর্তমানে সেই হাতে লিখা বা কম্পিউটারে টাইপ করা কন্ট্রাক্ট পেপার দিয়ে কাজ হবে না। আপনার অবশ্যই মালিক এর কাছ থেকে কাজের কন্ট্রাক্টের পেপার সরুপ উনি লাভ (UNILAV) সংগ্রহ করতে হবে।
ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রেঃ
আর নতুন এই পদ্ধতিতে যার পার্টিতা ইভা তথা নিজের ব্যবসার মাধ্যমে ফ্যামিলি নিয়ে আসার জন্য আবেদন করবেন, তাদের অনেক ঝামেলা পোহাতে হবে যেমন ব্যবসার মেয়াদ এক বছরের বেশি সময় অতিবাহিত হতে হবে এবং আপনি আসলেই প্রকৃত ব্যবসায়ী কিনা? আপনার ব্যবসার সকল কাগজ পত্র সঠিক আছে কিনা? আপনি কোথা থেকে পণ্য ক্রয় করেন? আপনার ব্যবসার লাইসেন্স সঠিক কিনা? এবং কমুনে থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কিনা? আপনার পণ্য ক্রয় করার রশিদ তথা ফাত্তুরা অরিজিনাল কিনা? আপনার ব্যবসার হিসাব নিকাশ করার কমারচিয়ালিস্তা সরকারি ভাবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কিনা? এবং উক্ত কমারচিয়ালিস্তা ইতালির ইম্মিগ্রেসন অফিস তথা প্রেফেত্তুরায় ব্লাকলিস্তটেড কিনা? আপনার ব্যবসার যে বাৎসরিক আয় ঘোষণা দিয়েছেন, তার উপর ধার্য করা সরকারি ট্যাক্স তথা ইনপ্স এবং ইভা (ভেট) প্রদান করেছেন কিনা? এরকম সকল বিষয় গুলো খুব কঠিন ও নিখুঁত ভাবে উনারা যাচাই বাঁচাই করার পরেই আপনাকে আপনার নুল্লাঅস্তা প্রদান করবে। যদি উক্ত ডকুমেন্টস গুলোতে কোন একটায় সামান্য পরিমাণ একিদ ওদিক হয় তাহলে আপনার আবেদন বাতিল করে দেওয়া হবে।

উপরে আমরা দেখলাম কাজের ও ব্যবসার ক্ষেত্রে যে সকল কাগজ পত্র লাগবে এবার আসুন বাসা সংক্রান্ত এবং অন্যান্য আর কি লাগবে সেই সম্পর্কে জেনে নেই।
*আপনার পার্সোনাল সকল ডকুমেন্টস ভ্যালিড থাকতে হবে।
* যেকোনো বাসা বাড়িতে আপনার রেসিডেন্স কার্ড তথা কার্টা ডিদেন্তিতা করা থাকতে হবে সংস্থার ঠিকানায় করা রেসিডেন্স কার্ড গ্রহণ যোগ্য নয়।
* এবং কমুনে থেক রেসিদেন্স এর সার্টিফিকেট এবং ফ্যামিলি সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে হবে।
* আপনার পরিবার এসে কোথায় থাকবে? এর জন্য নিজের নামে বাসার কন্ট্রাক্ট করাতে হবে অথবা কোন বন্ধুর বা পরিচিত মানুষের বাসা থাকলে উনাদের বাসা
থেকে আলোজ্জো করাতে হবে, আর হে এখানে একটি বিষয় খুব মনোযোগ দিয়ে লক্ষ রাখতে হবে, আপনি যদি নিজের নামে কন্ত্রাকে বাসা নিতে যান? অথবা কারো বাসা থেকে এই আলোজ্জো করান!! তাহলে আপনাকে আগেই যেকোনো ভাবে ওঁই বাসায় কতো জন মানুষ রেসিদেন্স করেছে বা ঐ বাসায় আদৌ আপনার পরিবারের জন্য যায়গা খালি আছে কিনা? সেই বিষয় গুলো জেনে নিতে হবে।এবং আপনি যদি নিজের নামে নতুন কোন বাসা কন্ট্রাক্ট করাতে যান সেই ক্ষেত্রে আগেই মালিক এর সাথে কমুনে গিয়ে জেনে নিতে হবে যে ঐ বাসার আগের ভাড়াটিয়া কোন রেসিদেন্স করিয়েছে কিনা? যদি দেখেন যে, ঐ বাসার আগের ভাড়াটিয়া রেসিদেন্স করিয়ে রেখেছে তাহলে সেই বাসা ভারা নেওয়া থেকে বিরত থাকুন। কারন প্রেফেত্তুরার নতুন নিয়মে আপনার পরিবারের জন্য এই আলোজ্জো এমন বাসা থেকে করাতে হবে যেই বাসায় পর্যাপ্ত পরিমাণ খালি জায়গা রয়েছে, যদি বাসায় আগের কারো রেসিদেন্স করা থাকে এবং আপনার পরিবারের সদস্য দের জন্য ঐ বাসার পর্যাপ্ত পরিমাণ জায়গা না থাকে? তাহলে আপনাকে ঐ বাসা দিয়ে করা আলোজ্জো দিয়ে নুল্লা অস্তা দেওয়া হবে না। আর হে একটি বিষয় মনে রাখবেন আপনি নতুন বাসা নিজের নামে কন্ট্রাক্ট করালেও আপনার আগে যে ভাড়াটিয়া ছিল তাদের রেসিদেন্স ঐ বাসা থেকে কমুনে গিয়ে কেটে দেওয়ার আবেদন করলেও, আবেদন করার পর থেকে ১৩ মাস সময় আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। ১৩ মাস পর গিয়ে আপনার বাসা থেকে পুরাতন বাড়ি ভাড়ার মালিকের দেওয়া রেসিদেন্স গুলো কাঁটা যাবে। আর ফ্যামিলি ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে আপনার রেসিদেন্স এক বাসায় এবং আপনার পরিবারের জন্য অন্য বাসা থেকে আলোজ্জো করালেও কোন সমস্যা নেই।

গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ঃ   তবে হ্যাঁ যারা নরমাল প্রক্রিয়ায় ফ্যামিলি নিয়ে আসতে পারছেন না, তারা খুব অল্প সময়ের মধ্যে তথা ২ মাসের মধ্যে চাইলে ফ্যামিলি কে ট্যুরিস্ট ভিসায় আবেদনের মাধ্যমে ৯০ দিনের জন্য ভ্রমণ করার ভিসায় নিয়ে আসতে পাড়বেন। আর ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য তেমন কোন জটিলতাও নেই এবং খুব সহজেই আপনি আপনার স্বামী, স্ত্রী- সন্তান এবং বাবা-মা, শ্বশুর-শাশুড়িকে এই ট্যুরিস্ট ভিসায় আবেদন করে নিয়ে আসতে পাড়বেন। কিভাবে কি করতে হবে সেই বিষয়ে বিস্তারিও আমিওপারি টিম এর সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিতে পাড়বেন।

 

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব

ইতালিতে ফ্যামিলি ভিসা আবেদেনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

আপডেট সময় ০৭:৫০:৫৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

ইতালির ফ্যামিলি ভিসার আবেদন প্রক্রিয়া আরো কঠিন করেছে ইতালি সরকার। আগে ইতালিতে ফ্যামিলি ভিসার আবেদনের ডকুমেন্টস তৈরি না থাকলেও প্রাথমিকভাবে  আবেদন করে পরে সকল ডকুমেন্টস তৈরি করে ইমিগ্রেসন অফিসে যাওয়া যেত। কিন্তু নতুন নিয়মে ফ্যামিলি ভিসার আবেদন করার পূর্বেই সকল ধরনের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস তৈরি করে তারপর আবেদন করতে হবে। পরিবর্তিত নিয়মে ভিসা আবেদনের ধাপ সমূহ

কাজের কন্ট্রাক্ট দিয়ে জমা দেওয়ার ক্ষেত্রেঃ
* আবেদনকারীর কাজের মেয়াদ এক বছরের অধিক হতে হবে অথবা এর নিচেও হতে পারে তবে সে ক্ষেত্রে ফ্যামিলি আনার জন্য ফ্যামিলি সদস্য অনুযায়ী যে পরিমাণ আয় দেখানো প্রয়োজন সে পরিমাণ সময় কাজ করেছেন দেখাতে হবে। উদাহরণ হিসাবে কেবল স্ত্রী আনার ক্ষেত্রে আপনার ৮,৭৩৭ ইউরো বাৎসরিক আয় দেখাতে হবে, তাই এ পরিমাণ আয় আপনার কাজের কন্ট্রাক্ট এর ক্যাটাগরি বা আপনি মাসে বেতন কত করে পাচ্ছেন তার উপর হিসাব করে সে পরিমাণ টাকা আয় করেন দেখাতে হবে। এখন এই আয় ৬ মাসের কাজে হোক বা ১ বছরের কাজে হোক।
* কাজের মালিকের কাছ থেকে মালিকের ডকুমেন্টস এবং সই নিয়ে আসতে হবে আবেদন করার আগেই।
* কাজের প্রতিটি বুস্তাপাগা তথা বেতন রশিদ,অন্তত ১৩ টি রশিদ নিজের সংগ্রহে থাকতে হবে।
* কাজের কন্ট্রাক্ট পেপার যেটা অনলাইনের মাধ্যমে শ্রম মন্ত্রনালয়ে রেজিস্ট্রি হয়েছে সেই কন্ট্রাক্ট পেপার তথা উনি লাভ (UNILAV) সংগ্রহে থাকতে হবে, উল্লেখ্য পূর্বে মালিক পক্ষ লিখিত কন্ট্রাক্ট পেপারে শ্রমিক দের কাজের কন্ট্রাক্ট করাতো এবং আপনাদের সেই কন্ট্রাক্ট এর কাগজ ধরিয়ে দিতো, কিন্তু বর্তমানে সেই হাতে লিখা বা কম্পিউটারে টাইপ করা কন্ট্রাক্ট পেপার দিয়ে কাজ হবে না। আপনার অবশ্যই মালিক এর কাছ থেকে কাজের কন্ট্রাক্টের পেপার সরুপ উনি লাভ (UNILAV) সংগ্রহ করতে হবে।
ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রেঃ
আর নতুন এই পদ্ধতিতে যার পার্টিতা ইভা তথা নিজের ব্যবসার মাধ্যমে ফ্যামিলি নিয়ে আসার জন্য আবেদন করবেন, তাদের অনেক ঝামেলা পোহাতে হবে যেমন ব্যবসার মেয়াদ এক বছরের বেশি সময় অতিবাহিত হতে হবে এবং আপনি আসলেই প্রকৃত ব্যবসায়ী কিনা? আপনার ব্যবসার সকল কাগজ পত্র সঠিক আছে কিনা? আপনি কোথা থেকে পণ্য ক্রয় করেন? আপনার ব্যবসার লাইসেন্স সঠিক কিনা? এবং কমুনে থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কিনা? আপনার পণ্য ক্রয় করার রশিদ তথা ফাত্তুরা অরিজিনাল কিনা? আপনার ব্যবসার হিসাব নিকাশ করার কমারচিয়ালিস্তা সরকারি ভাবে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কিনা? এবং উক্ত কমারচিয়ালিস্তা ইতালির ইম্মিগ্রেসন অফিস তথা প্রেফেত্তুরায় ব্লাকলিস্তটেড কিনা? আপনার ব্যবসার যে বাৎসরিক আয় ঘোষণা দিয়েছেন, তার উপর ধার্য করা সরকারি ট্যাক্স তথা ইনপ্স এবং ইভা (ভেট) প্রদান করেছেন কিনা? এরকম সকল বিষয় গুলো খুব কঠিন ও নিখুঁত ভাবে উনারা যাচাই বাঁচাই করার পরেই আপনাকে আপনার নুল্লাঅস্তা প্রদান করবে। যদি উক্ত ডকুমেন্টস গুলোতে কোন একটায় সামান্য পরিমাণ একিদ ওদিক হয় তাহলে আপনার আবেদন বাতিল করে দেওয়া হবে।

উপরে আমরা দেখলাম কাজের ও ব্যবসার ক্ষেত্রে যে সকল কাগজ পত্র লাগবে এবার আসুন বাসা সংক্রান্ত এবং অন্যান্য আর কি লাগবে সেই সম্পর্কে জেনে নেই।
*আপনার পার্সোনাল সকল ডকুমেন্টস ভ্যালিড থাকতে হবে।
* যেকোনো বাসা বাড়িতে আপনার রেসিডেন্স কার্ড তথা কার্টা ডিদেন্তিতা করা থাকতে হবে সংস্থার ঠিকানায় করা রেসিডেন্স কার্ড গ্রহণ যোগ্য নয়।
* এবং কমুনে থেক রেসিদেন্স এর সার্টিফিকেট এবং ফ্যামিলি সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে হবে।
* আপনার পরিবার এসে কোথায় থাকবে? এর জন্য নিজের নামে বাসার কন্ট্রাক্ট করাতে হবে অথবা কোন বন্ধুর বা পরিচিত মানুষের বাসা থাকলে উনাদের বাসা
থেকে আলোজ্জো করাতে হবে, আর হে এখানে একটি বিষয় খুব মনোযোগ দিয়ে লক্ষ রাখতে হবে, আপনি যদি নিজের নামে কন্ত্রাকে বাসা নিতে যান? অথবা কারো বাসা থেকে এই আলোজ্জো করান!! তাহলে আপনাকে আগেই যেকোনো ভাবে ওঁই বাসায় কতো জন মানুষ রেসিদেন্স করেছে বা ঐ বাসায় আদৌ আপনার পরিবারের জন্য যায়গা খালি আছে কিনা? সেই বিষয় গুলো জেনে নিতে হবে।এবং আপনি যদি নিজের নামে নতুন কোন বাসা কন্ট্রাক্ট করাতে যান সেই ক্ষেত্রে আগেই মালিক এর সাথে কমুনে গিয়ে জেনে নিতে হবে যে ঐ বাসার আগের ভাড়াটিয়া কোন রেসিদেন্স করিয়েছে কিনা? যদি দেখেন যে, ঐ বাসার আগের ভাড়াটিয়া রেসিদেন্স করিয়ে রেখেছে তাহলে সেই বাসা ভারা নেওয়া থেকে বিরত থাকুন। কারন প্রেফেত্তুরার নতুন নিয়মে আপনার পরিবারের জন্য এই আলোজ্জো এমন বাসা থেকে করাতে হবে যেই বাসায় পর্যাপ্ত পরিমাণ খালি জায়গা রয়েছে, যদি বাসায় আগের কারো রেসিদেন্স করা থাকে এবং আপনার পরিবারের সদস্য দের জন্য ঐ বাসার পর্যাপ্ত পরিমাণ জায়গা না থাকে? তাহলে আপনাকে ঐ বাসা দিয়ে করা আলোজ্জো দিয়ে নুল্লা অস্তা দেওয়া হবে না। আর হে একটি বিষয় মনে রাখবেন আপনি নতুন বাসা নিজের নামে কন্ট্রাক্ট করালেও আপনার আগে যে ভাড়াটিয়া ছিল তাদের রেসিদেন্স ঐ বাসা থেকে কমুনে গিয়ে কেটে দেওয়ার আবেদন করলেও, আবেদন করার পর থেকে ১৩ মাস সময় আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। ১৩ মাস পর গিয়ে আপনার বাসা থেকে পুরাতন বাড়ি ভাড়ার মালিকের দেওয়া রেসিদেন্স গুলো কাঁটা যাবে। আর ফ্যামিলি ভিসা আবেদনের ক্ষেত্রে আপনার রেসিদেন্স এক বাসায় এবং আপনার পরিবারের জন্য অন্য বাসা থেকে আলোজ্জো করালেও কোন সমস্যা নেই।

গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ঃ   তবে হ্যাঁ যারা নরমাল প্রক্রিয়ায় ফ্যামিলি নিয়ে আসতে পারছেন না, তারা খুব অল্প সময়ের মধ্যে তথা ২ মাসের মধ্যে চাইলে ফ্যামিলি কে ট্যুরিস্ট ভিসায় আবেদনের মাধ্যমে ৯০ দিনের জন্য ভ্রমণ করার ভিসায় নিয়ে আসতে পাড়বেন। আর ট্যুরিস্ট ভিসার জন্য তেমন কোন জটিলতাও নেই এবং খুব সহজেই আপনি আপনার স্বামী, স্ত্রী- সন্তান এবং বাবা-মা, শ্বশুর-শাশুড়িকে এই ট্যুরিস্ট ভিসায় আবেদন করে নিয়ে আসতে পাড়বেন। কিভাবে কি করতে হবে সেই বিষয়ে বিস্তারিও আমিওপারি টিম এর সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিতে পাড়বেন।