ঢাকা ১১:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি নিউ স্টার ফুটবল ক্লাব রতনপুরের সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম সংবর্ধিত বালাগঞ্জে শান্তিপুর্ণভাবে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন : চমক দেখিয়ে আনহার মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত ফ্রান্সে বাংলাদেশি অভিবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে ফরাসি জাতীয়তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন

‘এতো কুৎসিত লাগে নাই কোনো হাসি ’-নির্মাতা ফারুকী

  • আপডেট সময় ১১:২৩:৫৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জুলাই ২০১৮
  • ২২৩ বার পড়া হয়েছে

গতকাল বাস দূর্ঘটনায় নিহত দুই শিক্ষার্থীর প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মন্ত্রী শাজাহান খানের বডি ল্যাংগুয়েজ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে তুমুল ঝড়। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে শিল্পী, কলা-কুশলি, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বরা নান তীর্যক মন্তব্য করছেন তাদের ফেসবুক ওয়ালে।
বাংলাদেশের সফল চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে মন্ত্রীর আচরণ প্রসঙ্গে লিখেন, ‘এতো কুৎসিত লাগে নাই কোনো হাসি, এই জীবনে ’।
তিনি আরও লিখেছেন, এই নির্লজ্জ লোককে সরকারের উচিৎ বহিষ্কার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা।
জনপ্রিয় এবং গুণী নির্মাতার ফেসবুকে এই পোস্টে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৮ হাজারের বেশি লাইক পড়েছে এবং শেয়ার করেছে প্রায় ১৮০০ মানুষ। ফেসবুক পোষ্টটি পাঠকের জন্য হুবহু প্রকাশিত হলো-
অনেকে বলেছেন, ভাই, মন্ত্রীর তো আর দোষ নাই, দূর্ঘটনা তো দূর্ঘটনাই। নিশ্চয়ই। কিন্তু আপনি যখন এইসব বদমায়েশদের পাশে দাঁড়ান, দাঁত কেলিয়ে কুযুক্তি দেন, তখন আপনি আরো দশ হাজার পরিবহন শ্রমিককে দুর্বৃত্ত বানিয়ে দেন। তারা তখন রাজপথকে তাদের স্টেডিয়াম বানিয়ে খেলে, আর মাঝখান থেকে পিঁপড়ার মতো আমাদেরকে একটু থেতলে দেয়। এইভাবেই আশকারা দিতে দিতে আপনি একটা দুর্বৃত্ত বাহিনী গড়ে তোলেন এবং এই কাজ আপনি করে আসছেন বছরের পর বছর।
এই নির্লজ্জ লোকটাকে সরকার বরখাস্ত করে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে পারে না?

(নোট: সরকার আন্তরিক হইলে, আইন প্রণয়ন এবং ক্যামেরার সাহায্য নিয়ে দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা করলে, এই সব বদমায়েশ সোজা হবে মাত্র এক দিনে! সরকার সত্যি সত্যি চাইলে পরিবহন খাতের ব্যবস্থাপনা বদলে ফেলাও সম্ভব, যদি এই রকম দুর্বৃত্ত সরকারের ভিতরে থেকে ধর্মঘটের চাল না চালে এবং সরকার তাতে কাবু না হয়) ”

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি

‘এতো কুৎসিত লাগে নাই কোনো হাসি ’-নির্মাতা ফারুকী

আপডেট সময় ১১:২৩:৫৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩০ জুলাই ২০১৮

গতকাল বাস দূর্ঘটনায় নিহত দুই শিক্ষার্থীর প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মন্ত্রী শাজাহান খানের বডি ল্যাংগুয়েজ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চলছে তুমুল ঝড়। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে শিল্পী, কলা-কুশলি, চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বরা নান তীর্যক মন্তব্য করছেন তাদের ফেসবুক ওয়ালে।
বাংলাদেশের সফল চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে মন্ত্রীর আচরণ প্রসঙ্গে লিখেন, ‘এতো কুৎসিত লাগে নাই কোনো হাসি, এই জীবনে ’।
তিনি আরও লিখেছেন, এই নির্লজ্জ লোককে সরকারের উচিৎ বহিষ্কার করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করা।
জনপ্রিয় এবং গুণী নির্মাতার ফেসবুকে এই পোস্টে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৮ হাজারের বেশি লাইক পড়েছে এবং শেয়ার করেছে প্রায় ১৮০০ মানুষ। ফেসবুক পোষ্টটি পাঠকের জন্য হুবহু প্রকাশিত হলো-
অনেকে বলেছেন, ভাই, মন্ত্রীর তো আর দোষ নাই, দূর্ঘটনা তো দূর্ঘটনাই। নিশ্চয়ই। কিন্তু আপনি যখন এইসব বদমায়েশদের পাশে দাঁড়ান, দাঁত কেলিয়ে কুযুক্তি দেন, তখন আপনি আরো দশ হাজার পরিবহন শ্রমিককে দুর্বৃত্ত বানিয়ে দেন। তারা তখন রাজপথকে তাদের স্টেডিয়াম বানিয়ে খেলে, আর মাঝখান থেকে পিঁপড়ার মতো আমাদেরকে একটু থেতলে দেয়। এইভাবেই আশকারা দিতে দিতে আপনি একটা দুর্বৃত্ত বাহিনী গড়ে তোলেন এবং এই কাজ আপনি করে আসছেন বছরের পর বছর।
এই নির্লজ্জ লোকটাকে সরকার বরখাস্ত করে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে পারে না?

(নোট: সরকার আন্তরিক হইলে, আইন প্রণয়ন এবং ক্যামেরার সাহায্য নিয়ে দ্রুত বিচারের ব্যবস্থা করলে, এই সব বদমায়েশ সোজা হবে মাত্র এক দিনে! সরকার সত্যি সত্যি চাইলে পরিবহন খাতের ব্যবস্থাপনা বদলে ফেলাও সম্ভব, যদি এই রকম দুর্বৃত্ত সরকারের ভিতরে থেকে ধর্মঘটের চাল না চালে এবং সরকার তাতে কাবু না হয়) ”