ঢাকা ০১:৩১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি নিউ স্টার ফুটবল ক্লাব রতনপুরের সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম সংবর্ধিত বালাগঞ্জে শান্তিপুর্ণভাবে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন : চমক দেখিয়ে আনহার মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত ফ্রান্সে বাংলাদেশি অভিবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে ফরাসি জাতীয়তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন

এ কেমন নিষ্টুর রাজনীতি

  • আপডেট সময় ০৯:৪৯:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২
  • ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

হাজী হাবীব:- দিনে দিনে  বাংলাদেশের রাজনীতি অভিশপ্ত হয়ে উঠছে ! গতকাল দেশের মিডিয়ায় একটি খবর ছিল একদা বিএনপির এক শীর্ষ স্থানিয় নেতা হারিস চৌধুরীর মারা গেছেন, তাও আবার ৩ মাস আগে অথচ তার মৃত্যুর খবর তার নেতাকর্মী, আত্বিয় স্বজন সসর্বোপরি দেশের জনগণ জানেন না !!

নতুন নতুন ইতিহাস রচিত হচ্ছে দেশের রাজনীতির প্রেক্ষপটে। এম কে আনোয়ার, তরিকুল ইসলাম, হান্নান শাহ, মওদুদ আহমেদ, সামছুল ইসলাম, আব্দুল মান্নান, চৌধুরী ইবনে কামাল সহ অগনিতপ্রবীন রাজনীতিবীদ গন মামলা, হামলা স্বাস্থ্য সেবা বিহীন হুলিয়া মাথায় নিয়ে ধুকে ধুকে চলে গেলেন এ পৃথিবি ছেড়ে।

ইলিয়াছ আলি, চৌধুরী আলম দিনার আহমদ আজমী, আরমানদের মতো শত শত মানুষ ঘুম হয়ে গেল, নিঁখোজ রয়ে গেল, তারা কোথায় পরিবার পরিজন জানলো না, কোথায় তাদের লাস কোথায় তাদের কবর, কোথায় তারা বন্ধি ? তাদের কবর স্থান পাইলেও শান্তনা ছিল যে, আত্বিয় স্বজন শুভাখাংকি, কবরের পাশে দাড়াইয়া ফাতেহা পাঠ করতে পারলে।

সালাউদ্দিন আহমদ, সুখ রঞ্জন বালি সহ কতজন ইন্ডিয়ার মাঠে ঘাটে, জেলে পড়ে আছেন তার হিসাব আছে কারো কাছে ? রাজনীতিবিদরা বাংলাদেশের মাটি মানুষের রাজনীতি না করে প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে নি:শেষ করে দিয়েছে একটি জাতি গোষ্টির হাজার বছরের ভ্রাত্রিত্ববোধ আর সহনশীলতা! জনগণের  বুঝতে বাকি নেই আমরা আর ইন্ডিয়া যত কাচাকাচি ততই আপন জন এদেশের জেল আর ইন্ডিয়ার জেলে একাকার পাতাল পথ রয়েছে যেন? এদেশে গুম হলে ঐ দেশে ভেসে উঠে !!

কতদিন চলবে এমন অরাজকতা কারো পৌষ মাস কারো সর্বনাশ ? এদেশে ন্যায় বিচার পেতে হলে ক্ষমতায় যেতে হবে ! ক্ষমতা না থাকলে এদেশে বিচারের বানী নিভৃতে কাঁদে, নিরবে চোখের জলই হবে চির সাথী যারা হারিয়েছে আপনজন আপন ধন, যেমন উপজেলা চেয়ার ম্যান একরামুল, যুবলীগ নেতা ইব্রাহীম, পৌর চেয়ারম্যান লুকমান নারায়নগঞ্জের সাত মার্ডার সহ খুন হওয়া হাজার হাজার মানুষ।

হালের ফ্রান্সের প্রধান মন্ত্রী লিয়নেল জজপা, প্রেসিডন্ট ফ্রন্সোয়া হলাদ, ব্রিটেনের গর্ডন ব্রাউন, ডেবিড ক্যামেরুন,
আমেরিকার প্রেসিডন্ট ডাব্লিউ জর্জ বুস, বিল ক্লিনিক বারাক উবামা সাংবিধানিক বাধ্যবাদকতায় কিংবা জনগন কর্তৃক ভোটে হেরে গেলে কোথায় যেন হারিয়ে যায় পরিপূর্ন সম্মান নিয়ে।

আর আমাদের সোনার দেশের সোনারা, রাজনীদিবীদ ক্ষমতায় থাকলে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত পাওয়ার নিয়ে, পদ পদবী নিয়ে কবরে যেতে চায় বা যায়। ক্ষমতা আর পদের দাপট চলে সামন্তরাল যুগের পর যুগ কাঙ্গালের মতো যেত তৃপ্তি তাদের নসীবে আল্লাহ লেখেন নাই ! সর্বদায় ফুস ফাস করতে থাকে চলতে থাকে।

একবার ভেবে দেখুন শামীম উসমানরা ক্ষমতা হারালে দেশের মাঠি হারাম হয়ে যায়, কানাডা হয় আবাসস্থল, ক্ষমতায় না থাকলে ক্ষমতাধর দুর্দান্ত দাপটে নেতা হারিস চৌধুর কখন কোথায় মারা গেলেন কেউ জানেনা !!

তবে যুগে যুগে মঈন ইউ আহমেদ, ফখর উদ্দিন, হাসান মাহমুদ খন্দকার, বেন্জির আহমদ, আব্দুল আজিজরা যুগ যুগ বেছে থাকে আয়েশে।

যারা সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত নাসিম আহমেদ, সুহেল তাজ, মতিয়া চৌধুরীকে পিটায়, তাঁরাই চিপহুইপ জয়নাল আবেদীন, শাম্মি আক্তারদেরকে পিটায় একেমন রাজনীতি ??

সুইস ব্যাংক ভরে রাখা আর বেগম পাড়া তৈরী কারিরা থাকবে যোগ যোগ সুখে ১৮ কোটি জনগনের রক্তশুষে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি

এ কেমন নিষ্টুর রাজনীতি

আপডেট সময় ০৯:৪৯:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২

হাজী হাবীব:- দিনে দিনে  বাংলাদেশের রাজনীতি অভিশপ্ত হয়ে উঠছে ! গতকাল দেশের মিডিয়ায় একটি খবর ছিল একদা বিএনপির এক শীর্ষ স্থানিয় নেতা হারিস চৌধুরীর মারা গেছেন, তাও আবার ৩ মাস আগে অথচ তার মৃত্যুর খবর তার নেতাকর্মী, আত্বিয় স্বজন সসর্বোপরি দেশের জনগণ জানেন না !!

নতুন নতুন ইতিহাস রচিত হচ্ছে দেশের রাজনীতির প্রেক্ষপটে। এম কে আনোয়ার, তরিকুল ইসলাম, হান্নান শাহ, মওদুদ আহমেদ, সামছুল ইসলাম, আব্দুল মান্নান, চৌধুরী ইবনে কামাল সহ অগনিতপ্রবীন রাজনীতিবীদ গন মামলা, হামলা স্বাস্থ্য সেবা বিহীন হুলিয়া মাথায় নিয়ে ধুকে ধুকে চলে গেলেন এ পৃথিবি ছেড়ে।

ইলিয়াছ আলি, চৌধুরী আলম দিনার আহমদ আজমী, আরমানদের মতো শত শত মানুষ ঘুম হয়ে গেল, নিঁখোজ রয়ে গেল, তারা কোথায় পরিবার পরিজন জানলো না, কোথায় তাদের লাস কোথায় তাদের কবর, কোথায় তারা বন্ধি ? তাদের কবর স্থান পাইলেও শান্তনা ছিল যে, আত্বিয় স্বজন শুভাখাংকি, কবরের পাশে দাড়াইয়া ফাতেহা পাঠ করতে পারলে।

সালাউদ্দিন আহমদ, সুখ রঞ্জন বালি সহ কতজন ইন্ডিয়ার মাঠে ঘাটে, জেলে পড়ে আছেন তার হিসাব আছে কারো কাছে ? রাজনীতিবিদরা বাংলাদেশের মাটি মানুষের রাজনীতি না করে প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে নি:শেষ করে দিয়েছে একটি জাতি গোষ্টির হাজার বছরের ভ্রাত্রিত্ববোধ আর সহনশীলতা! জনগণের  বুঝতে বাকি নেই আমরা আর ইন্ডিয়া যত কাচাকাচি ততই আপন জন এদেশের জেল আর ইন্ডিয়ার জেলে একাকার পাতাল পথ রয়েছে যেন? এদেশে গুম হলে ঐ দেশে ভেসে উঠে !!

কতদিন চলবে এমন অরাজকতা কারো পৌষ মাস কারো সর্বনাশ ? এদেশে ন্যায় বিচার পেতে হলে ক্ষমতায় যেতে হবে ! ক্ষমতা না থাকলে এদেশে বিচারের বানী নিভৃতে কাঁদে, নিরবে চোখের জলই হবে চির সাথী যারা হারিয়েছে আপনজন আপন ধন, যেমন উপজেলা চেয়ার ম্যান একরামুল, যুবলীগ নেতা ইব্রাহীম, পৌর চেয়ারম্যান লুকমান নারায়নগঞ্জের সাত মার্ডার সহ খুন হওয়া হাজার হাজার মানুষ।

হালের ফ্রান্সের প্রধান মন্ত্রী লিয়নেল জজপা, প্রেসিডন্ট ফ্রন্সোয়া হলাদ, ব্রিটেনের গর্ডন ব্রাউন, ডেবিড ক্যামেরুন,
আমেরিকার প্রেসিডন্ট ডাব্লিউ জর্জ বুস, বিল ক্লিনিক বারাক উবামা সাংবিধানিক বাধ্যবাদকতায় কিংবা জনগন কর্তৃক ভোটে হেরে গেলে কোথায় যেন হারিয়ে যায় পরিপূর্ন সম্মান নিয়ে।

আর আমাদের সোনার দেশের সোনারা, রাজনীদিবীদ ক্ষমতায় থাকলে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত পাওয়ার নিয়ে, পদ পদবী নিয়ে কবরে যেতে চায় বা যায়। ক্ষমতা আর পদের দাপট চলে সামন্তরাল যুগের পর যুগ কাঙ্গালের মতো যেত তৃপ্তি তাদের নসীবে আল্লাহ লেখেন নাই ! সর্বদায় ফুস ফাস করতে থাকে চলতে থাকে।

একবার ভেবে দেখুন শামীম উসমানরা ক্ষমতা হারালে দেশের মাঠি হারাম হয়ে যায়, কানাডা হয় আবাসস্থল, ক্ষমতায় না থাকলে ক্ষমতাধর দুর্দান্ত দাপটে নেতা হারিস চৌধুর কখন কোথায় মারা গেলেন কেউ জানেনা !!

তবে যুগে যুগে মঈন ইউ আহমেদ, ফখর উদ্দিন, হাসান মাহমুদ খন্দকার, বেন্জির আহমদ, আব্দুল আজিজরা যুগ যুগ বেছে থাকে আয়েশে।

যারা সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত নাসিম আহমেদ, সুহেল তাজ, মতিয়া চৌধুরীকে পিটায়, তাঁরাই চিপহুইপ জয়নাল আবেদীন, শাম্মি আক্তারদেরকে পিটায় একেমন রাজনীতি ??

সুইস ব্যাংক ভরে রাখা আর বেগম পাড়া তৈরী কারিরা থাকবে যোগ যোগ সুখে ১৮ কোটি জনগনের রক্তশুষে।