ঢাকা ১০:১৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইতালির আরেচ্ছোতে বর্ণাঢ্য একুশে মেলা: মুসলিম কমিউনিটির কবরস্থান বাস্তবায়নের দাবী ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াবে বাংলাদেশ দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন: ফিলিস্তিন ও বাংলাদেশ দূতাবাসে বিশেষ বৈঠক মামুন হাওলাদার প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব নতুন তত্ত্ব ও জ্ঞান সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্যঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ফ্রান্স দর্পণ পত্রিকার সম্পাদকের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারিসে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইপিএস কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের নবগঠিত কমিটির আত্মপ্রকাশ ফরাসি নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশি শোয়েব বালাগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত রুপালী ব্যাংক লিমিটেড সুলতানপুর শাখার উদ্যোগে প্রকাশ্যে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠিত

ওয়ার্ল্ড ফিশারি বিশ্ববিদ্যালয় (ডব্লুএফইউ) এর ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগ দিলেন রাষ্ট্রদূত মোঃ শামীম আহসান

  • আপডেট সময় ১২:৪১:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১
  • ৪৭ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

মিনহাজ হোসেন ইতালী থেকেঃ এইচ.ই. ইতালির নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ শামীম আহসান, ২০২১ সালের ১২ জানুয়ারী, কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের মহাসাগর ও মৎস্যজীবন মন্ত্রক, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিভাগের মহাপরিচালক, মিঃ ডং-সিক ডাব্লুইউ-এর সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে যোগ দিয়েছেন। জুম প্ল্যাটফর্ম। বিশ্ব মৎস্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার (ডব্লুএফইউ) আরও সহযোগিতা অন্বেষণের জন্য এই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এখানে এটি উল্লেখ করা প্রাসঙ্গিক যে প্রজাতন্ত্র কোরিয়া প্রাসঙ্গিক এফএও প্রশাসনিক সংস্থার মাধ্যমে এফএওর সাথে পাইলট অংশীদারি কর্মসূচির পারফরম্যান্স পর্যালোচনার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ রাখার পরিকল্পনা করেছে। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে আসন্ন এফএও ৩৪ তম সিওএফআই (মৎস্য বিষয়ক কমিটি) বৈঠকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে নতুন করে সমর্থন পাওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ব্রিফিংয়ের বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এই মহৎ উদ্যোগকে প্রশংসা করেন যা মৎস্য খাতের বিশেষজ্ঞদের একটি পুল তৈরি করতে সক্ষম করে। বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম মাছ উত্পাদনকারী দেশ হিসাবে বাংলাদেশের অবস্থানকে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত অনুভব করেছিলেন যে এই উদ্যোগটি বাংলাদেশের মৎস্য খাতকে আরও টেকসই হতে সহায়তা করবে এবং শেষ পর্যন্ত উন্নত পুষ্টি ও খাদ্য উৎপাদনে ভূমিকা রাখবে। রাষ্ট্রদূত ২০১৭ – ২০১৮ সালে সিওএফআই ৩৩-তে যেমন আসন্ন সিওপিআই ৩৪-এ ডব্লুএফইউ প্রতিষ্ঠার জন্য সমর্থন প্রদানের কোরিয়ার পক্ষের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা নিশ্চিত করেছেন। রাষ্ট্রদূত শামীম আহসান এর অধীনে বেশিরভাগ সংখ্যক বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর ভর্তির গভীর প্রশংসা স্বীকার করেছেন। বিগত বছরগুলিতে প্রস্তাবিত ডাব্লুএফইউয়ের পাইলট প্রোগ্রাম। দূতাবাসের অর্থনৈতিক কাউন্সিলর মানশ মিত্রও যোগ দিয়েছিলেন এবং আন্তর্জাতিক সহযোগীতা বিভাগের ডিজিও তাঁর সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

ইতালির আরেচ্ছোতে বর্ণাঢ্য একুশে মেলা: মুসলিম কমিউনিটির কবরস্থান বাস্তবায়নের দাবী

ওয়ার্ল্ড ফিশারি বিশ্ববিদ্যালয় (ডব্লুএফইউ) এর ভার্চুয়াল বৈঠকে যোগ দিলেন রাষ্ট্রদূত মোঃ শামীম আহসান

আপডেট সময় ১২:৪১:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১

মিনহাজ হোসেন ইতালী থেকেঃ এইচ.ই. ইতালির নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জনাব মোঃ শামীম আহসান, ২০২১ সালের ১২ জানুয়ারী, কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের মহাসাগর ও মৎস্যজীবন মন্ত্রক, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিভাগের মহাপরিচালক, মিঃ ডং-সিক ডাব্লুইউ-এর সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে যোগ দিয়েছেন। জুম প্ল্যাটফর্ম। বিশ্ব মৎস্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার (ডব্লুএফইউ) আরও সহযোগিতা অন্বেষণের জন্য এই বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এখানে এটি উল্লেখ করা প্রাসঙ্গিক যে প্রজাতন্ত্র কোরিয়া প্রাসঙ্গিক এফএও প্রশাসনিক সংস্থার মাধ্যমে এফএওর সাথে পাইলট অংশীদারি কর্মসূচির পারফরম্যান্স পর্যালোচনার ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ রাখার পরিকল্পনা করেছে। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে আসন্ন এফএও ৩৪ তম সিওএফআই (মৎস্য বিষয়ক কমিটি) বৈঠকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে নতুন করে সমর্থন পাওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ব্রিফিংয়ের বৈঠকের উদ্দেশ্য ছিল। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এই মহৎ উদ্যোগকে প্রশংসা করেন যা মৎস্য খাতের বিশেষজ্ঞদের একটি পুল তৈরি করতে সক্ষম করে। বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম মাছ উত্পাদনকারী দেশ হিসাবে বাংলাদেশের অবস্থানকে উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত অনুভব করেছিলেন যে এই উদ্যোগটি বাংলাদেশের মৎস্য খাতকে আরও টেকসই হতে সহায়তা করবে এবং শেষ পর্যন্ত উন্নত পুষ্টি ও খাদ্য উৎপাদনে ভূমিকা রাখবে। রাষ্ট্রদূত ২০১৭ – ২০১৮ সালে সিওএফআই ৩৩-তে যেমন আসন্ন সিওপিআই ৩৪-এ ডব্লুএফইউ প্রতিষ্ঠার জন্য সমর্থন প্রদানের কোরিয়ার পক্ষের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তা নিশ্চিত করেছেন। রাষ্ট্রদূত শামীম আহসান এর অধীনে বেশিরভাগ সংখ্যক বাংলাদেশী শিক্ষার্থীর ভর্তির গভীর প্রশংসা স্বীকার করেছেন। বিগত বছরগুলিতে প্রস্তাবিত ডাব্লুএফইউয়ের পাইলট প্রোগ্রাম। দূতাবাসের অর্থনৈতিক কাউন্সিলর মানশ মিত্রও যোগ দিয়েছিলেন এবং আন্তর্জাতিক সহযোগীতা বিভাগের ডিজিও তাঁর সহকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন