ঢাকা ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স’র নতুন কমিটির পরিচিতি ও ইফতার প্যারিসে ‘নকশী বাংলা ফাউন্ডেশন সম্মাননা’ পেলেন ফ্রান্স দর্পণ নির্বাহী সম্পাদক ফেরদৌস করিম আখঞ্জী নানা আয়োজনে প্যারিসে সাফের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন ‘পাঠশালা’ – ফরাসী ভাষা শিক্ষার স্কুল উদ্বোধন

করোনায় আইসিইউ, ভেন্টিলেটর অভাবে অনেক শিশু প্রান হারিয়েছে বাংলাদেশে -আরিফ

  • আপডেট সময় ০৯:৩৬:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২০
  • ৭৫ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

ডেস্ক রিপোর্ট – কোভিড – ১৯ বাংলাদেশের সতেরোজন শিশু করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে বলে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।এখনো দেশটির বিভিন্ন জেলায় ভর্তি আছেন ত্রিশজনের মতো শিশু, কিশোর এইছাড়াও আইসোলেশনে আছেন বিশজনের মতো।শুরুতে ই বাংলাদেশের গণমাধ্যমগুলো খবর প্রকাশ করে করোনায় শিশুদের ঝুঁকি নেই। অথচ! করোনার প্রাথমিক ধাক্কায় দেশটিতে অসংখ্য শিশু’র করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে।যারা প্রতিবেশী বা পিতা-মাতার দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে প্রবেশের পর পর ই নিজ ফেসবুকে শিশু মুখপাত্র খ্যাত আরিফ রহমান শিবলী জানিয়েছিলেন,করোনা ভাইরাস আক্রান্ত শিশুদের পাশে দাঁড়িয়ে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করবেন। ইতিমধ্যে তিনি কথাও রেখেছেন, দেশটির বিভিন্ন জেলায় আক্রান্ত সন্দেহ বা করোনা আক্রান্ত শিশু’র খোঁজ পাওয়ার সাথে সাথে ই জেলা প্রশাসক থেকে নিয়ে বিভিন্ন মহলে কথা বলে সেবা দিচ্ছেন এই বাংলাদেশী তরুন।এইছাড়াও করোনা ভাইরাস আক্রান্ত শিশুদের ব্যাপারে নিয়মিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কথা বলে সেবা’র জন্য তার প্রচেষ্টা দেশটির গণমাধ্যম সহ সব মহলে প্রশংসা পেয়েছে।আরিফ এই প্রতিবেদককে বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া বেশীরভাগ শিশুর জীবন রক্ষা করা সম্ভব হতো যদি আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন দেওয়া যেতো। বিভিন্ন জেলায় দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকগন এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এমনকি দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যম রিপোর্ট বলছে, রাজধানী ঢাকা ছাড়া বাকী জেলাগুলোর বেশীরভাগ ই আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন নেই।যদিও বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রী বারবার বলছেন, তিনমাস আগে থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন তারা।অথচ! দেশটির চিকিৎসক মহল থেকে শুরু করে
জনসাধারণ স্বাস্থ্য মন্ত্রী’র দাবীকে মিথ্যা বলছেন।বাংলাদেশের শিশুদের মুখপাত্র খ্যাত আরিফ এই প্রতিবেদককে বলেন,ফ্রান্স চায়না নেপাল সহ বেশকিছু দেশে কথা বলেছি আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন সহায়তা চেয়েছি।সাড়া কেমন পাচ্ছেন এই প্রতিবেদকের এমন প্রশ্নে আরিফ বলেন,ঢাকা চায়না দুতাবাস ইতিমধ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পাশাপাশি নেপালের সাথে কথা আগাচ্ছে। এই দুরসময়ে অন্তত ছয়টিও যদি কুটনৈতিক মহলে কথা বলে আইসিইউ,ভেন্টিলেটর মেশিন পাওয়া যায়।ইনশা আল্লাহ অসংখ্য শিশুর জীবন রক্ষা করা সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য, জাতিসংঘে বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিস্থিতি সংক্রান্ত রিপোর্ট আয়োজনে শিশু দের পরিস্থিতি তুলে ধরে আলোচনার আসেন আরিফ। তার দেওয়া বক্তব্য ঢাকায় অবস্থানরত বিদেশী কুটনৈতিক, সাংবাদিক সহ জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের অফিসার দের নজর কাড়ে। সেখান থেকে তাকে “ভয়েজ অব বাংলাদেশ চিলড্রেনস ‘ খ্যাতি দেওয়া হয়। শিশুদের নিয়ে কাজ করে দেশী – বিদেশী সম্মাননা অর্জন যেমন করেছেন তেমনি পেয়েছেন ইউনিসেফ, সেভ দ্যা চিলড্রেনস প্রশংসা।এই তরুনের গড়া দক্ষিন এশিয়ার প্রথম শিশু গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান ‘ কিডস মিডিয়া ‘ তাকে দেশী বিদেশী গণমাধ্যমে পরিচিতি দেয় দ্রুত। এইছাড়াও সদস্য হিসেবে এই তরুন কাজ করছেন আমেনিস্ট্রি ইন্টারন্যাশনাল, রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স,
আর্টিকেল নাইন্টিনের মতো প্রভাবশালী সংগঠনের সাথে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন

করোনায় আইসিইউ, ভেন্টিলেটর অভাবে অনেক শিশু প্রান হারিয়েছে বাংলাদেশে -আরিফ

আপডেট সময় ০৯:৩৬:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট – কোভিড – ১৯ বাংলাদেশের সতেরোজন শিশু করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে বলে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে।এখনো দেশটির বিভিন্ন জেলায় ভর্তি আছেন ত্রিশজনের মতো শিশু, কিশোর এইছাড়াও আইসোলেশনে আছেন বিশজনের মতো।শুরুতে ই বাংলাদেশের গণমাধ্যমগুলো খবর প্রকাশ করে করোনায় শিশুদের ঝুঁকি নেই। অথচ! করোনার প্রাথমিক ধাক্কায় দেশটিতে অসংখ্য শিশু’র করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছে।যারা প্রতিবেশী বা পিতা-মাতার দ্বারা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে প্রবেশের পর পর ই নিজ ফেসবুকে শিশু মুখপাত্র খ্যাত আরিফ রহমান শিবলী জানিয়েছিলেন,করোনা ভাইরাস আক্রান্ত শিশুদের পাশে দাঁড়িয়ে সুচিকিৎসা নিশ্চিত করবেন। ইতিমধ্যে তিনি কথাও রেখেছেন, দেশটির বিভিন্ন জেলায় আক্রান্ত সন্দেহ বা করোনা আক্রান্ত শিশু’র খোঁজ পাওয়ার সাথে সাথে ই জেলা প্রশাসক থেকে নিয়ে বিভিন্ন মহলে কথা বলে সেবা দিচ্ছেন এই বাংলাদেশী তরুন।এইছাড়াও করোনা ভাইরাস আক্রান্ত শিশুদের ব্যাপারে নিয়মিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কথা বলে সেবা’র জন্য তার প্রচেষ্টা দেশটির গণমাধ্যম সহ সব মহলে প্রশংসা পেয়েছে।আরিফ এই প্রতিবেদককে বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া বেশীরভাগ শিশুর জীবন রক্ষা করা সম্ভব হতো যদি আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন দেওয়া যেতো। বিভিন্ন জেলায় দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকগন এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এমনকি দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যম রিপোর্ট বলছে, রাজধানী ঢাকা ছাড়া বাকী জেলাগুলোর বেশীরভাগ ই আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন নেই।যদিও বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রী বারবার বলছেন, তিনমাস আগে থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন তারা।অথচ! দেশটির চিকিৎসক মহল থেকে শুরু করে
জনসাধারণ স্বাস্থ্য মন্ত্রী’র দাবীকে মিথ্যা বলছেন।বাংলাদেশের শিশুদের মুখপাত্র খ্যাত আরিফ এই প্রতিবেদককে বলেন,ফ্রান্স চায়না নেপাল সহ বেশকিছু দেশে কথা বলেছি আইসিইউ, ভেন্টিলেটর মেশিন সহায়তা চেয়েছি।সাড়া কেমন পাচ্ছেন এই প্রতিবেদকের এমন প্রশ্নে আরিফ বলেন,ঢাকা চায়না দুতাবাস ইতিমধ্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পাশাপাশি নেপালের সাথে কথা আগাচ্ছে। এই দুরসময়ে অন্তত ছয়টিও যদি কুটনৈতিক মহলে কথা বলে আইসিইউ,ভেন্টিলেটর মেশিন পাওয়া যায়।ইনশা আল্লাহ অসংখ্য শিশুর জীবন রক্ষা করা সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য, জাতিসংঘে বাংলাদেশ মানবাধিকার পরিস্থিতি সংক্রান্ত রিপোর্ট আয়োজনে শিশু দের পরিস্থিতি তুলে ধরে আলোচনার আসেন আরিফ। তার দেওয়া বক্তব্য ঢাকায় অবস্থানরত বিদেশী কুটনৈতিক, সাংবাদিক সহ জাতিসংঘের উচ্চপর্যায়ের অফিসার দের নজর কাড়ে। সেখান থেকে তাকে “ভয়েজ অব বাংলাদেশ চিলড্রেনস ‘ খ্যাতি দেওয়া হয়। শিশুদের নিয়ে কাজ করে দেশী – বিদেশী সম্মাননা অর্জন যেমন করেছেন তেমনি পেয়েছেন ইউনিসেফ, সেভ দ্যা চিলড্রেনস প্রশংসা।এই তরুনের গড়া দক্ষিন এশিয়ার প্রথম শিশু গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান ‘ কিডস মিডিয়া ‘ তাকে দেশী বিদেশী গণমাধ্যমে পরিচিতি দেয় দ্রুত। এইছাড়াও সদস্য হিসেবে এই তরুন কাজ করছেন আমেনিস্ট্রি ইন্টারন্যাশনাল, রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স,
আর্টিকেল নাইন্টিনের মতো প্রভাবশালী সংগঠনের সাথে।