ঢাকা ১০:১৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব নতুন তত্ত্ব ও জ্ঞান সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্যঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ফ্রান্স দর্পণ পত্রিকার সম্পাদকের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারিসে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইপিএস কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের নবগঠিত কমিটির আত্মপ্রকাশ ফরাসি নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশি শোয়েব বালাগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত রুপালী ব্যাংক লিমিটেড সুলতানপুর শাখার উদ্যোগে প্রকাশ্যে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠিত সাজাপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে বালাগঞ্জ থানায় পুলিশ গহরপুরে কৃতি ফুটবলার লায়েক আহমদ সংবর্ধিত; জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে লেখাপড়ার গুরুত্ব অনুভব করেছি

টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ মেডিসিন বিশেষজ্ঞদের

  • আপডেট সময় ০৯:৫৫:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১
  • ৬৪ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

করোনাভাইরাসের টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ। প্রথম দিকে চিকিৎসকদের দেয়া হচ্ছে টিকা তাদের ফলাফল জনমনে আস্থা তৈরি হবে বলে জানান রোগ তত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডাক্তার মুস্তাক হোসেন।

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা এখন দেশে। এ টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে এরই মধ্যে জনমনে সৃষ্টি হয়েছে নানা কৌতূহল।

অক্সফোর্ডের গবেষণায় দেখা গেছে, তাদের আবিষ্কৃত টিকা নেয়ার পর তেমন কোনো জটিলতা সৃষ্টি হয় না। অন্যান্য টিকার মতো স্থান কিছুটা ফুলে যাওয়া, মৃদু শরীর ব্যথা, হালকা জ্বর, চুলকানি, মাথা ব্যথা, বমি ভাব হতে পারে। যা পরে এমনিতেই সেরে যায়। এসব প্রতিকারের ব্যবস্থা সাধারণ চিকিৎসায় সম্ভব বলে জানান, এই চিকিৎসক।

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. এ বি এম আদুল্লাহ বলেন, অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনে পার্শ্ব প্রক্রিয়া একেবারে নেই। যদিও থাকে তা তুলনা মূলকভাবে অনেক কম। তাৎক্ষনিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে। যাতে চিকিৎসা করা যায় তার জন্য ব্যবস্থা থাকবে।

আগামী মাসে শুরু হবে দেশে করোনার টিকা প্রয়োগ। প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসকরা নিলে তাদেরকে পর্যবেক্ষণ করা হবে বলে জানান, আইইডিসিআরের সাবেক এই কর্মকর্তা।

আইইডিসিআর এর উপদেষ্টা মুস্তাক হোসেন বলেন, স্বাস্থ্য-কর্মীরা প্রথমে টিকা নিচ্ছে। এবং তাদের মধ্যে অনেকের জন্যেই জরুরী। নিশ্চয় মানুষকে এটিতে আশ্বস্ত করবে।

জটিল রোগে আক্রান্তদের এ টিকা আপাতত না নেয়ার পরামর্শ তাদের। টিকা নিয়ে কোনো রকম গুজবে সাড়া না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন,  সমালোচনা আমরা দেখেছি। কিন্তু আমরা সেই সমালোচনায় কান দেয়নি। আমরা কাজ করে গিয়েছি। আর যাদের টিকা পাওয়া দরকার তারা আগে পাবে।

টিকাদানেও সরকার সফল হবে বলে জানান মন্ত্রী।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব

টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ মেডিসিন বিশেষজ্ঞদের

আপডেট সময় ০৯:৫৫:৩৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১

করোনাভাইরাসের টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ। প্রথম দিকে চিকিৎসকদের দেয়া হচ্ছে টিকা তাদের ফলাফল জনমনে আস্থা তৈরি হবে বলে জানান রোগ তত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডাক্তার মুস্তাক হোসেন।

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা এখন দেশে। এ টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে এরই মধ্যে জনমনে সৃষ্টি হয়েছে নানা কৌতূহল।

অক্সফোর্ডের গবেষণায় দেখা গেছে, তাদের আবিষ্কৃত টিকা নেয়ার পর তেমন কোনো জটিলতা সৃষ্টি হয় না। অন্যান্য টিকার মতো স্থান কিছুটা ফুলে যাওয়া, মৃদু শরীর ব্যথা, হালকা জ্বর, চুলকানি, মাথা ব্যথা, বমি ভাব হতে পারে। যা পরে এমনিতেই সেরে যায়। এসব প্রতিকারের ব্যবস্থা সাধারণ চিকিৎসায় সম্ভব বলে জানান, এই চিকিৎসক।

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. এ বি এম আদুল্লাহ বলেন, অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনে পার্শ্ব প্রক্রিয়া একেবারে নেই। যদিও থাকে তা তুলনা মূলকভাবে অনেক কম। তাৎক্ষনিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে। যাতে চিকিৎসা করা যায় তার জন্য ব্যবস্থা থাকবে।

আগামী মাসে শুরু হবে দেশে করোনার টিকা প্রয়োগ। প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসকরা নিলে তাদেরকে পর্যবেক্ষণ করা হবে বলে জানান, আইইডিসিআরের সাবেক এই কর্মকর্তা।

আইইডিসিআর এর উপদেষ্টা মুস্তাক হোসেন বলেন, স্বাস্থ্য-কর্মীরা প্রথমে টিকা নিচ্ছে। এবং তাদের মধ্যে অনেকের জন্যেই জরুরী। নিশ্চয় মানুষকে এটিতে আশ্বস্ত করবে।

জটিল রোগে আক্রান্তদের এ টিকা আপাতত না নেয়ার পরামর্শ তাদের। টিকা নিয়ে কোনো রকম গুজবে সাড়া না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্য মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন,  সমালোচনা আমরা দেখেছি। কিন্তু আমরা সেই সমালোচনায় কান দেয়নি। আমরা কাজ করে গিয়েছি। আর যাদের টিকা পাওয়া দরকার তারা আগে পাবে।

টিকাদানেও সরকার সফল হবে বলে জানান মন্ত্রী।