ঢাকা ০১:৩৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াবে বাংলাদেশ দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন: ফিলিস্তিন ও বাংলাদেশ দূতাবাসে বিশেষ বৈঠক মামুন হাওলাদার প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব নতুন তত্ত্ব ও জ্ঞান সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্যঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ফ্রান্স দর্পণ পত্রিকার সম্পাদকের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারিসে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইপিএস কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের নবগঠিত কমিটির আত্মপ্রকাশ ফরাসি নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশি শোয়েব বালাগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত রুপালী ব্যাংক লিমিটেড সুলতানপুর শাখার উদ্যোগে প্রকাশ্যে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠিত সাজাপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে বালাগঞ্জ থানায় পুলিশ

বিয়ানীবাজারের সাংবাদিকদের সাথে সাপ্তাহিক প্রবাস কন্ঠ ইতালীর প্রধান উপদেষ্টা অলি উদ্দিন শামীম’র মত বিনিময়

  • আপডেট সময় ১২:৫২:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮
  • ২১৬ বার পড়া হয়েছে

মিনহাজ হোসেন ইতালী : গত ৬ জানুয়ারী হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইটালী প্রবাসীর নিখোঁজ হওয়া প্রসঙ্গে বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন জালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী’র সভাপতি অলি উদ্দিন শামীম।তিনি বলেন-তাকে খুঁজে পেতে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে আমরা চেষ্ঠা তদবীর করে যাচ্ছি। অথচ নিখোঁজ হওয়া জাহাঙ্গীর হোসেন বাবলুকে এখনো ফিরে পাওয়া যাচ্ছেনা। ঢাকা বিমানবন্দর থানায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। অবিলম্বে তাকে খুজেঁ বের করার জন্য আমরা জোর দাবী জানাচ্ছি । তিনি আরো বলেন-জালালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। প্রবাসীদের সহায়তা প্রদান, আইনী সহযোগিতাসহ বিভিন্ন সমাজসেবা মুলক কর্মকান্ড করে থাকে । বিয়ানীবাজারের সন্তান হিসাবে তার নিখোঁজ হওয়া মেনে নিতে পারছিনা।উল্লেখ্য বিয়ানীবাজারের সন্তান মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার ভবানীপুর এলাকার বর্তমান বাসিন্ধা ব্যাবসায়ী আব্দুল হাছিবের ছেলে বাবলু (২৭) ৬-৭ বছর ধরে ইটালীর ভ্যানিস শহরে থাকেন। সেখানে তিনি বৈধভাবে বসবাস করছেন। বিয়ের জন্য তিনি ৫ জানুয়ারী এমিরেটস এয়ালাইন্সের একটি বিমানে ভ্যানিস থেকে রওয়ানা দেন। দুবাই হয়ে ওই ফ্লাইটটি পরদিন ৬ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে ঢাকার হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছায়। ঢাকা থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ওই দিন বেলা দেড়টারদিকে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা ছিল জাহাঙ্গীরের। স্বজনেরা তাঁকে আনতে ওসমানী বিমানবন্দরে যান। কিন্তু জাহাঙ্গীর সিলেটে নির্ধারিত ফ্লাইটে পৌঁছাননি। দিনভর সেখানে অপেক্ষা করে স্বজনেরা বাড়ি ফিরে যান।জাহাঙ্গীরের পাসপোর্ট ও টিকিটের ফটোকপি নিয়ে তাঁরা এমিরেটস এয়ারলাইনসের ঢাকা ও সিলেটের কার্যালয়ে যোগাযোগ করেছেন। সেখান থেকে জাহাঙ্গীরের ঢাকায় শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেন এমিরেটসের কর্মকর্তারা। এরপর পরিবারের উৎকণ্ঠা আরও বেড়ে যায়। তাঁরা ভেনিসে জাহাঙ্গীরের বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জেনেছেন, ৫ জানুয়ারি ভেনিসে বন্ধুরা তাঁকে বিমানবন্দরে পৌঁছে দেন। দুবাই পৌঁছার পর ৫ জানুয়ারি দিবাগত রাত চারটার দিকে তিনি জাকিরের মুঠোফোনে কিছু সময় পর দুবাই থেকে ঢাকায় রওনা দেওয়ার বিষয়টি জানিয়ে একটি বার্তা পাঠান। জাহাঙ্গীর ভেনিসে অন্য বাংলাদেশিদের মতো ছোটখাটো ব্যবসা করতেন। কোনো রাজনৈতিক দল বা অন্য সংগঠনের সঙ্গে তাঁর সম্পৃক্ততা নেই।মতবিনিময় সভায় বিয়ানীবাজারে কর্মরত সকল প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভায় জালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী’র সভাপতি অলি উদ্দিন শামীম সকল সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে আরো জোরালোভাবে সংবাদ প্রচার সহ সহযোগিতা কামনা করেন এবং বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের সব ধরনের সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াবে বাংলাদেশ দারিদ্র বিমোচন ফাউন্ডেশন: ফিলিস্তিন ও বাংলাদেশ দূতাবাসে বিশেষ বৈঠক মামুন হাওলাদার

বিয়ানীবাজারের সাংবাদিকদের সাথে সাপ্তাহিক প্রবাস কন্ঠ ইতালীর প্রধান উপদেষ্টা অলি উদ্দিন শামীম’র মত বিনিময়

আপডেট সময় ১২:৫২:০৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮

মিনহাজ হোসেন ইতালী : গত ৬ জানুয়ারী হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইটালী প্রবাসীর নিখোঁজ হওয়া প্রসঙ্গে বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন জালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী’র সভাপতি অলি উদ্দিন শামীম।তিনি বলেন-তাকে খুঁজে পেতে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে আমরা চেষ্ঠা তদবীর করে যাচ্ছি। অথচ নিখোঁজ হওয়া জাহাঙ্গীর হোসেন বাবলুকে এখনো ফিরে পাওয়া যাচ্ছেনা। ঢাকা বিমানবন্দর থানায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। অবিলম্বে তাকে খুজেঁ বের করার জন্য আমরা জোর দাবী জানাচ্ছি । তিনি আরো বলেন-জালালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী প্রবাসীদের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। প্রবাসীদের সহায়তা প্রদান, আইনী সহযোগিতাসহ বিভিন্ন সমাজসেবা মুলক কর্মকান্ড করে থাকে । বিয়ানীবাজারের সন্তান হিসাবে তার নিখোঁজ হওয়া মেনে নিতে পারছিনা।উল্লেখ্য বিয়ানীবাজারের সন্তান মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলার ভবানীপুর এলাকার বর্তমান বাসিন্ধা ব্যাবসায়ী আব্দুল হাছিবের ছেলে বাবলু (২৭) ৬-৭ বছর ধরে ইটালীর ভ্যানিস শহরে থাকেন। সেখানে তিনি বৈধভাবে বসবাস করছেন। বিয়ের জন্য তিনি ৫ জানুয়ারী এমিরেটস এয়ালাইন্সের একটি বিমানে ভ্যানিস থেকে রওয়ানা দেন। দুবাই হয়ে ওই ফ্লাইটটি পরদিন ৬ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে ঢাকার হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছায়। ঢাকা থেকে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে ওই দিন বেলা দেড়টারদিকে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছার কথা ছিল জাহাঙ্গীরের। স্বজনেরা তাঁকে আনতে ওসমানী বিমানবন্দরে যান। কিন্তু জাহাঙ্গীর সিলেটে নির্ধারিত ফ্লাইটে পৌঁছাননি। দিনভর সেখানে অপেক্ষা করে স্বজনেরা বাড়ি ফিরে যান।জাহাঙ্গীরের পাসপোর্ট ও টিকিটের ফটোকপি নিয়ে তাঁরা এমিরেটস এয়ারলাইনসের ঢাকা ও সিলেটের কার্যালয়ে যোগাযোগ করেছেন। সেখান থেকে জাহাঙ্গীরের ঢাকায় শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেন এমিরেটসের কর্মকর্তারা। এরপর পরিবারের উৎকণ্ঠা আরও বেড়ে যায়। তাঁরা ভেনিসে জাহাঙ্গীরের বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জেনেছেন, ৫ জানুয়ারি ভেনিসে বন্ধুরা তাঁকে বিমানবন্দরে পৌঁছে দেন। দুবাই পৌঁছার পর ৫ জানুয়ারি দিবাগত রাত চারটার দিকে তিনি জাকিরের মুঠোফোনে কিছু সময় পর দুবাই থেকে ঢাকায় রওনা দেওয়ার বিষয়টি জানিয়ে একটি বার্তা পাঠান। জাহাঙ্গীর ভেনিসে অন্য বাংলাদেশিদের মতো ছোটখাটো ব্যবসা করতেন। কোনো রাজনৈতিক দল বা অন্য সংগঠনের সঙ্গে তাঁর সম্পৃক্ততা নেই।মতবিনিময় সভায় বিয়ানীবাজারে কর্মরত সকল প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় সভায় জালালাবাদ কল্যাণ সংঘ বৃহত্তর সিলেট ইটালী’র সভাপতি অলি উদ্দিন শামীম সকল সাংবাদিকদের এ ব্যাপারে আরো জোরালোভাবে সংবাদ প্রচার সহ সহযোগিতা কামনা করেন এবং বিয়ানীবাজারে কর্মরত সাংবাদিকদের সব ধরনের সহযোগিতার আশ^াস প্রদান করেন।