ঢাকা ০৮:৪৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব নতুন তত্ত্ব ও জ্ঞান সৃষ্টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল উদ্দেশ্যঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক ফ্রান্স দর্পণ পত্রিকার সম্পাদকের ভাইয়ের মৃত্যুতে প্যারিসে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ইপিএস কমিউনিটি ইন ফ্রান্স এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত গ্লোবাল জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সের নবগঠিত কমিটির আত্মপ্রকাশ ফরাসি নাট্যমঞ্চে বাংলাদেশি শোয়েব বালাগঞ্জে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত রুপালী ব্যাংক লিমিটেড সুলতানপুর শাখার উদ্যোগে প্রকাশ্যে কৃষি ও পল্লী ঋণ বিতরণ অনুষ্ঠিত সাজাপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে বালাগঞ্জ থানায় পুলিশ গহরপুরে কৃতি ফুটবলার লায়েক আহমদ সংবর্ধিত; জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে লেখাপড়ার গুরুত্ব অনুভব করেছি

ব্রিটেনের রাস্তায় ভুয়া ভিক্ষুকদের আয় বছরে ২৬ হাজার পাউন্ড

  • আপডেট সময় ০১:২৫:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮
  • ১৩৪ বার পড়া হয়েছে

বাড়ি আছে তবুও ভিক্ষুক সেজে ব্রিটেনের ফুটপাত ও রাস্তায় ভিক্ষা করে বছরে অন্তত ২৬ হাজার পাউন্ড হাতিয়ে নেন তারা। ভাবটা দেখান যেন তারা আশ্রয়হীন। এভাবে দয়া ভিক্ষা করে তাদের কেউ কেউ দিনে ১’শ পাউন্ড পর্যন্ত হাতিয়ে নেন। ডেইলি স্টার ইউকে

ব্রিটেনের ইস্ট ইয়র্কশায়ারের বন্দর নগরী হাল’এর কথাই ধরুন। সেখানকার স্থানীয় এক দোকানি জানান, রাস্তার ধারে যে ব্যক্তিটি বসে ভিক্ষা করছে, সেখান থেকে তার বাড়িটি দেখা যায়। আরেক কসাই নিক বিরনি জানান, তার মাংসের দোকানের কাছেই এক ব্যক্তি প্রতিদিন ‘ক্লিন শেভ’ করে আসেন এবং ভিক্ষা করে তার বাড়িতে ফেরেন। অল্প দূরেই আবাসিক সড়কের ধারেই তার বাড়ি। হাল শহরে পুলিশ ইতিমধ্যে ভিক্ষুকদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। শহরটির পরিষদও এক ভিক্ষুকের বিরুদ্ধে অসামাজিক আচরণের অভিযোগ এনেছে। মার্ক নোবেল নামে এক ভিখারিকে লোকজনের কাছ থেকে ভিক্ষা চাওয়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাল সিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র জানান, এধরনের ভিক্ষাবৃত্তি সহ্য করা হবে না। ওদিকে হামবারসাইড পুলিশ টুইটারে স্থানীয় দোকানদারদের প্রতি তিনজন ভিক্ষুক সম্পর্কে সাবধান করে এক সতর্কবার্তায় বলছে তারা প্রায়শঃ ভিক্ষার নামে পথচারী ও অন্যান্য লোকজনকে যন্ত্রনা দিচ্ছে। তাদের একজন দিনে ১’শ পাউন্ডের বেশি আয় করছে বলেও সতর্ক বার্তায় বলা হয়। যদি কেউ ভিক্ষা চায় তাহলে পুলিশ তা ১০১ নম্বরে টেলিফোন করে জানাতে বলেছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর এ্যাডাম উইলিয়ামস বলেন, এটা নির্ধারণ করা খুবই কঠিন কে বাধ্য হয়ে ভিক্ষা করছে আর কে বাড়ি থাকা সত্ত্বেও তা করছে। দুর্ভাগ্যবশত দুই তিনজন এমনও আছেন যারা নাকি খুবই সমস্যার মধ্যে রয়েছে এবং তাদের সাহায্য করা প্রয়োজন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্রবাসে বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য ধরে রাখার লক্ষ্যে রোমে বৃহত্তম ঢাকাবাসীর পিঠা উৎসব

ব্রিটেনের রাস্তায় ভুয়া ভিক্ষুকদের আয় বছরে ২৬ হাজার পাউন্ড

আপডেট সময় ০১:২৫:৫২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০১৮

বাড়ি আছে তবুও ভিক্ষুক সেজে ব্রিটেনের ফুটপাত ও রাস্তায় ভিক্ষা করে বছরে অন্তত ২৬ হাজার পাউন্ড হাতিয়ে নেন তারা। ভাবটা দেখান যেন তারা আশ্রয়হীন। এভাবে দয়া ভিক্ষা করে তাদের কেউ কেউ দিনে ১’শ পাউন্ড পর্যন্ত হাতিয়ে নেন। ডেইলি স্টার ইউকে

ব্রিটেনের ইস্ট ইয়র্কশায়ারের বন্দর নগরী হাল’এর কথাই ধরুন। সেখানকার স্থানীয় এক দোকানি জানান, রাস্তার ধারে যে ব্যক্তিটি বসে ভিক্ষা করছে, সেখান থেকে তার বাড়িটি দেখা যায়। আরেক কসাই নিক বিরনি জানান, তার মাংসের দোকানের কাছেই এক ব্যক্তি প্রতিদিন ‘ক্লিন শেভ’ করে আসেন এবং ভিক্ষা করে তার বাড়িতে ফেরেন। অল্প দূরেই আবাসিক সড়কের ধারেই তার বাড়ি। হাল শহরে পুলিশ ইতিমধ্যে ভিক্ষুকদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে। শহরটির পরিষদও এক ভিক্ষুকের বিরুদ্ধে অসামাজিক আচরণের অভিযোগ এনেছে। মার্ক নোবেল নামে এক ভিখারিকে লোকজনের কাছ থেকে ভিক্ষা চাওয়া থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হাল সিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র জানান, এধরনের ভিক্ষাবৃত্তি সহ্য করা হবে না। ওদিকে হামবারসাইড পুলিশ টুইটারে স্থানীয় দোকানদারদের প্রতি তিনজন ভিক্ষুক সম্পর্কে সাবধান করে এক সতর্কবার্তায় বলছে তারা প্রায়শঃ ভিক্ষার নামে পথচারী ও অন্যান্য লোকজনকে যন্ত্রনা দিচ্ছে। তাদের একজন দিনে ১’শ পাউন্ডের বেশি আয় করছে বলেও সতর্ক বার্তায় বলা হয়। যদি কেউ ভিক্ষা চায় তাহলে পুলিশ তা ১০১ নম্বরে টেলিফোন করে জানাতে বলেছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর এ্যাডাম উইলিয়ামস বলেন, এটা নির্ধারণ করা খুবই কঠিন কে বাধ্য হয়ে ভিক্ষা করছে আর কে বাড়ি থাকা সত্ত্বেও তা করছে। দুর্ভাগ্যবশত দুই তিনজন এমনও আছেন যারা নাকি খুবই সমস্যার মধ্যে রয়েছে এবং তাদের সাহায্য করা প্রয়োজন।