ঢাকা ০১:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি নিউ স্টার ফুটবল ক্লাব রতনপুরের সহসভাপতি সাইফুল ইসলাম সংবর্ধিত বালাগঞ্জে শান্তিপুর্ণভাবে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন : চমক দেখিয়ে আনহার মিয়া চেয়ারম্যান নির্বাচিত ফ্রান্সে বাংলাদেশি অভিবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে ফরাসি জাতীয়তা বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন

যুক্তরাজ্যে গুলতি দিয়ে মসজিদে হামলা, নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ মোতায়েন

  • আপডেট সময় ১০:১২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮
  • ১৭৩ বার পড়া হয়েছে

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে দুইটি মসজিদের সামনে সশস্ত্র পুলিশ সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তা নিশ্চিতে। মসজিদ দুইটি বুধবার রাতে গুলতির হামলার শিকার হয়েছিল। গুলতি দিয়ে ছোঁড়া ধাতব টুকরো পাওয়া গেছে মসজিদের ভেতর। স্মল হিথে অবস্থিত মসজিদ কামরুল ইসলামের কর্তৃপক্ষ ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে বুধবার রাত ১০টার দিকে। ২০ মিনিট পরে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে কাছেই অবস্থিত আরেকটি মসজিদ আল হিজরাহ। সেখানে গিয়ে পুলিশ গুলতি দিয়ে ছোঁড়া ধতব টুকরোগুলো পায়। এসব ধাতব টুকরোগুলোর কারণে মসজিদ দুইটির জানালার কাঁচ ভেঙে গেছে। যে সময় গুলতি দিয়ে হামলা চালানো হয়েছিল সে সময় মসজিদে নামাজ চলছিল।

ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতে বলা হয়েছে, ‘নিরাপত্তার জন্য সশস্ত্র পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ধাতব টুকরোগুলো ছোঁড়া হয়েছে উচ্চ গতির গুলতি থেকে। এখন পর্যন্ত দায়ীদের বিষয়ে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে এলাকাবাসী ও নামাজিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ রাস্তায় টহল দিচ্ছে।’ মসজিদ কামরুল ইসলামের ইমাম উসমান হুসেইন বলেছেন, যখন জানলার কাঁচ ভাঙা হয় তখন মানুষ ‘ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছিল। নামাজিরা ভেবেছিলেন কেউ বন্দুক নিয়ে তাদের ওপর হামলা করেছে। আমরা খুব জোরে একটা শব্দ হতে শুনেছিলাম। সবাই খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিল। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। কিন্তু আমরা জানি না এই হামলা কেন ঘটেছে।’

এই ঘটনা এমন এক সময় ঘটল যখন সন্ত্রাসী হামলায় এক সুদানির জড়িত থাকার সংবাদ নিয়ে সবাই আলোচনা করছে। গত মঙ্গলবার ২৯ বছর বয়সী ওই সুদানি মুসলমানকে আটক করা হয়েছে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে। ২৯ বছর বয়সী অভিযুক্ত ব্যক্তি গাড়ি নিয়ে নিরাপত্তা বেষ্টনী পার্লামেন্ট ভবন এলাকায় ঢোকার চেষ্টা করেছিল। ওই ঘটনায় তিন ব্যক্তি আহত হয়েছিলেন।

বার্মিংহাম সেন্ট্রাল মসজিদের ট্রাস্টি নাসার মাহমুদ মন্তব্য করেছেন, বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাস করা মুসলমানরা ‘তুলনারহিত’ বিদ্বেষের শিকার হচ্ছেন। তিনি সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী হামলার জন্য অনুমানের ভিত্তিতে মুসলমানদের দায়ী না করার আহ্বান জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমের প্রতি।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

তরুণ উদ্যোক্তা মাসুদ মিয়া-আয়ুব হাসানের যৌথ প্রয়াসের প্রতিষ্ঠান পিংক সিটি

যুক্তরাজ্যে গুলতি দিয়ে মসজিদে হামলা, নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ মোতায়েন

আপডেট সময় ১০:১২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামে দুইটি মসজিদের সামনে সশস্ত্র পুলিশ সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তা নিশ্চিতে। মসজিদ দুইটি বুধবার রাতে গুলতির হামলার শিকার হয়েছিল। গুলতি দিয়ে ছোঁড়া ধাতব টুকরো পাওয়া গেছে মসজিদের ভেতর। স্মল হিথে অবস্থিত মসজিদ কামরুল ইসলামের কর্তৃপক্ষ ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে বুধবার রাত ১০টার দিকে। ২০ মিনিট পরে পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে কাছেই অবস্থিত আরেকটি মসজিদ আল হিজরাহ। সেখানে গিয়ে পুলিশ গুলতি দিয়ে ছোঁড়া ধতব টুকরোগুলো পায়। এসব ধাতব টুকরোগুলোর কারণে মসজিদ দুইটির জানালার কাঁচ ভেঙে গেছে। যে সময় গুলতি দিয়ে হামলা চালানো হয়েছিল সে সময় মসজিদে নামাজ চলছিল।

ওয়েস্ট মিডল্যান্ড পুলিশের পক্ষ থেকে দেওয়া এক বিবৃতে বলা হয়েছে, ‘নিরাপত্তার জন্য সশস্ত্র পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ধাতব টুকরোগুলো ছোঁড়া হয়েছে উচ্চ গতির গুলতি থেকে। এখন পর্যন্ত দায়ীদের বিষয়ে কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে এলাকাবাসী ও নামাজিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ রাস্তায় টহল দিচ্ছে।’ মসজিদ কামরুল ইসলামের ইমাম উসমান হুসেইন বলেছেন, যখন জানলার কাঁচ ভাঙা হয় তখন মানুষ ‘ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছিল। নামাজিরা ভেবেছিলেন কেউ বন্দুক নিয়ে তাদের ওপর হামলা করেছে। আমরা খুব জোরে একটা শব্দ হতে শুনেছিলাম। সবাই খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিল। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। কিন্তু আমরা জানি না এই হামলা কেন ঘটেছে।’

এই ঘটনা এমন এক সময় ঘটল যখন সন্ত্রাসী হামলায় এক সুদানির জড়িত থাকার সংবাদ নিয়ে সবাই আলোচনা করছে। গত মঙ্গলবার ২৯ বছর বয়সী ওই সুদানি মুসলমানকে আটক করা হয়েছে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত থাকার অভিযোগে। ২৯ বছর বয়সী অভিযুক্ত ব্যক্তি গাড়ি নিয়ে নিরাপত্তা বেষ্টনী পার্লামেন্ট ভবন এলাকায় ঢোকার চেষ্টা করেছিল। ওই ঘটনায় তিন ব্যক্তি আহত হয়েছিলেন।

বার্মিংহাম সেন্ট্রাল মসজিদের ট্রাস্টি নাসার মাহমুদ মন্তব্য করেছেন, বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাস করা মুসলমানরা ‘তুলনারহিত’ বিদ্বেষের শিকার হচ্ছেন। তিনি সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সন্ত্রাসী হামলার জন্য অনুমানের ভিত্তিতে মুসলমানদের দায়ী না করার আহ্বান জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমের প্রতি।