ঢাকা ০৯:৩১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স’র নতুন কমিটির পরিচিতি ও ইফতার প্যারিসে ‘নকশী বাংলা ফাউন্ডেশন সম্মাননা’ পেলেন ফ্রান্স দর্পণ নির্বাহী সম্পাদক ফেরদৌস করিম আখঞ্জী নানা আয়োজনে প্যারিসে সাফের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন ‘পাঠশালা’ – ফরাসী ভাষা শিক্ষার স্কুল উদ্বোধন

যুক্তরাস্ট্রে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা বাড়ছে

  • আপডেট সময় ১০:৪৩:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২০
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

একের পর এক রেকর্ড সৃস্টি হচ্ছে যুক্তরাস্ট্রে। এই সব রেকর্ড বৈশ্বিক মহামারী করোনাকে ঘিরে। শক্তিধর এই রাস্ট্র সব শক্তি ব্যবহার করছে এক অদৃশ্য শক্তি মোকাবেলার করতে। হোয়াইট হাউসে কাজ করছে টাস্কফোর্স, কাজ করছে ফেডারেল ইমার্জেন্সী ম্যানেজমেন্ট ফেমা, প্রতিটি রাজ্যে চলছে প্রেস ব্রিফিং, নগর মেয়ররা প্রতিদিন মুখোমুখী হচ্ছেন মিডিয়ার, সবাই জানাচ্ছেন সর্বশেষ আপডেট।

আজ একদিনে শনাক্ত সর্বোচ্চ ৪৫ হাজার যা রেকর্ড যুক্তরাস্ট্রে। যা পৃথিবীর দেড়শো রাস্ট্রে এখনো এমন সংখ্যা ছড়াতে পারেনি। শুধু শনাক্তে রেকর্ড হবে কেন। এই দেশের সুস্থতায় আছে রেকর্ড।

গত ২৪ ঘন্টায় ২৪ হাজার ৫শ রোগী সুস্থ হওয়ার খবর নতুন এবং এটিও রেকর্ড। উদ্বিগ্ন, আতংকিত৩, শংকিত ৩২ কোটি মানুষের যুক্তরাস্ট্রের জন্য এটি অনেক বিস্ময়ের এবং আশাবাদের। আগে প্রতি সপ্তাহে এখানে গড়ে দুই লাখ শনাক্ত হয়েছেন। আজ যে রেকর্ড সৃস্টি হলো সেটি অব্যাহত থাকলে এখন সপ্তাহে শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা তিন লাখ ছাড়াবে।

স্বপ্নের দেশ আমেরিকায় এ পর্যন্ত ২ শতাধিক মানুষের প্রাণহানীর খবরেও কমিউনিটিতে আছে চাপা আতংক। এখানে কর্মরত সব শ্রেনীর মানুষ রয়েছেন ঝুকিতে। গৃহবন্ধী বাংলাদেশীরা জীবন কাটাচ্ছেন শোক আর সমবেদনায়।

৫০ রাজ্যের মৃত্যু হার উর্ধ্বমুখী রয়েছে। প্রতিদিন মৃত্যু গড়ে ১৮০০ এর উপরে। তবে এক লাখ ১০ হাজারের উপরে মানুষের মুক্তির বার্তা, বাড়ি ফিরা, সুস্থতা স্বস্থি দেয় সবাইকে। আজ ২৪ এপ্রিল যুক্তরাস্ট্রে শনাক্ত মোট ৯লাখ ২৫ হাজার এর উপরে, মৃত্যু প্রায় ৫২ হাজার, ১৮৫ জন, আর সুস্থতা এক লাখ ১০ হাজার ৪৩২জন। আজ নিউইয়র্কে মোট মৃত্যু দাড়িয়েছে ২১,২৯১ জন। শনাক্ত ২লাখ ৭৭ হাজার এর উপরে । নিউইয়র্কে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা এখন আশাব্যঞ্জক প্রায় ৩৫ হাজার। নিউইয়র্কে নতুন মৃত্যু ৪৩০জন। এটি কম মৃত্যুর রেকর্ড।

এক মাস আর্গে যুক্তরাস্ট্রে মোট শনাক্ত ছিল ৪২ হাজার ৪৪৩জন, আজ একদিনে শনাক্ত প্রায় ৪৫ হাজার। যুক্তরাস্ট্র পৃথিবীর শীর্ষস্থান নেয়া, এখন কোন নতুন বিষয় নয়, অঙ্গরাজ্য নিউইয়র্ক বিশ্বেও শীর্ষস্থানে চলে যাওয়ার খবরটিও পুরাতন। একদিনে ৪৫ হাজার শনাক্ত হওয়া এখন নতুন খবর। ফলে করোনা মহামারী যে ইতিহাস সৃস্টি করেছে তা বিশ্ববাসীর জানা।

যুক্তরাস্ট্র জুড়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বিভিন্ন রাজ্যে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে টেস্টিং কে। বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউন বাড়তে পারে জুন পর্যন্ত এমন ইঙ্গিত দিচ্ছেন নগর মেয়র এবং রাজ্য গভর্নররা। অনেক রাজ্যে দ্বিগুন করা হয়েছে প্রতিদিনের টেস্টিং।

নিউইয়র্কে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে, তবে উদ্বেগ জনক অবস্থা নিউজার্সীতে। নিউজার্সীতে শনাক্ত সংখ্যা এক লাখ ২ হাজারের উপরে, মারা গেছেন ৫৬১৭জন। গীর্ষে থাকা অঙ্গরাজ্যের চিত্র হচ্ছে এ রকম, মেসাচুসেটুসেটে শনাক্ত প্রায় ৫১ হাজার, মোট মৃত্যু ২৫৫৬ জন, ক্যালিফোর্নিয়ায় মোট শনাক্ত প্রায় ৪১ হাজার, তবে পেনসেলভেনিয়ায় ৪০ হাজার এর উপরে।মিশিগানে শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা প্রায় ৩৫ হাজার । এদিকে মিশিগানে মৃত্যু ৩০৮৫ জন, পেনসেলভেনিয়ায় ১৭৩৬ জন, ক্যালিফোর্নিয়ায় ১৫৯৪ জন।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন

যুক্তরাস্ট্রে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা বাড়ছে

আপডেট সময় ১০:৪৩:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২০

একের পর এক রেকর্ড সৃস্টি হচ্ছে যুক্তরাস্ট্রে। এই সব রেকর্ড বৈশ্বিক মহামারী করোনাকে ঘিরে। শক্তিধর এই রাস্ট্র সব শক্তি ব্যবহার করছে এক অদৃশ্য শক্তি মোকাবেলার করতে। হোয়াইট হাউসে কাজ করছে টাস্কফোর্স, কাজ করছে ফেডারেল ইমার্জেন্সী ম্যানেজমেন্ট ফেমা, প্রতিটি রাজ্যে চলছে প্রেস ব্রিফিং, নগর মেয়ররা প্রতিদিন মুখোমুখী হচ্ছেন মিডিয়ার, সবাই জানাচ্ছেন সর্বশেষ আপডেট।

আজ একদিনে শনাক্ত সর্বোচ্চ ৪৫ হাজার যা রেকর্ড যুক্তরাস্ট্রে। যা পৃথিবীর দেড়শো রাস্ট্রে এখনো এমন সংখ্যা ছড়াতে পারেনি। শুধু শনাক্তে রেকর্ড হবে কেন। এই দেশের সুস্থতায় আছে রেকর্ড।

গত ২৪ ঘন্টায় ২৪ হাজার ৫শ রোগী সুস্থ হওয়ার খবর নতুন এবং এটিও রেকর্ড। উদ্বিগ্ন, আতংকিত৩, শংকিত ৩২ কোটি মানুষের যুক্তরাস্ট্রের জন্য এটি অনেক বিস্ময়ের এবং আশাবাদের। আগে প্রতি সপ্তাহে এখানে গড়ে দুই লাখ শনাক্ত হয়েছেন। আজ যে রেকর্ড সৃস্টি হলো সেটি অব্যাহত থাকলে এখন সপ্তাহে শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা তিন লাখ ছাড়াবে।

স্বপ্নের দেশ আমেরিকায় এ পর্যন্ত ২ শতাধিক মানুষের প্রাণহানীর খবরেও কমিউনিটিতে আছে চাপা আতংক। এখানে কর্মরত সব শ্রেনীর মানুষ রয়েছেন ঝুকিতে। গৃহবন্ধী বাংলাদেশীরা জীবন কাটাচ্ছেন শোক আর সমবেদনায়।

৫০ রাজ্যের মৃত্যু হার উর্ধ্বমুখী রয়েছে। প্রতিদিন মৃত্যু গড়ে ১৮০০ এর উপরে। তবে এক লাখ ১০ হাজারের উপরে মানুষের মুক্তির বার্তা, বাড়ি ফিরা, সুস্থতা স্বস্থি দেয় সবাইকে। আজ ২৪ এপ্রিল যুক্তরাস্ট্রে শনাক্ত মোট ৯লাখ ২৫ হাজার এর উপরে, মৃত্যু প্রায় ৫২ হাজার, ১৮৫ জন, আর সুস্থতা এক লাখ ১০ হাজার ৪৩২জন। আজ নিউইয়র্কে মোট মৃত্যু দাড়িয়েছে ২১,২৯১ জন। শনাক্ত ২লাখ ৭৭ হাজার এর উপরে । নিউইয়র্কে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা এখন আশাব্যঞ্জক প্রায় ৩৫ হাজার। নিউইয়র্কে নতুন মৃত্যু ৪৩০জন। এটি কম মৃত্যুর রেকর্ড।

এক মাস আর্গে যুক্তরাস্ট্রে মোট শনাক্ত ছিল ৪২ হাজার ৪৪৩জন, আজ একদিনে শনাক্ত প্রায় ৪৫ হাজার। যুক্তরাস্ট্র পৃথিবীর শীর্ষস্থান নেয়া, এখন কোন নতুন বিষয় নয়, অঙ্গরাজ্য নিউইয়র্ক বিশ্বেও শীর্ষস্থানে চলে যাওয়ার খবরটিও পুরাতন। একদিনে ৪৫ হাজার শনাক্ত হওয়া এখন নতুন খবর। ফলে করোনা মহামারী যে ইতিহাস সৃস্টি করেছে তা বিশ্ববাসীর জানা।

যুক্তরাস্ট্র জুড়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে বিভিন্ন রাজ্যে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে টেস্টিং কে। বিভিন্ন রাজ্যে লকডাউন বাড়তে পারে জুন পর্যন্ত এমন ইঙ্গিত দিচ্ছেন নগর মেয়র এবং রাজ্য গভর্নররা। অনেক রাজ্যে দ্বিগুন করা হয়েছে প্রতিদিনের টেস্টিং।

নিউইয়র্কে করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে, তবে উদ্বেগ জনক অবস্থা নিউজার্সীতে। নিউজার্সীতে শনাক্ত সংখ্যা এক লাখ ২ হাজারের উপরে, মারা গেছেন ৫৬১৭জন। গীর্ষে থাকা অঙ্গরাজ্যের চিত্র হচ্ছে এ রকম, মেসাচুসেটুসেটে শনাক্ত প্রায় ৫১ হাজার, মোট মৃত্যু ২৫৫৬ জন, ক্যালিফোর্নিয়ায় মোট শনাক্ত প্রায় ৪১ হাজার, তবে পেনসেলভেনিয়ায় ৪০ হাজার এর উপরে।মিশিগানে শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা প্রায় ৩৫ হাজার । এদিকে মিশিগানে মৃত্যু ৩০৮৫ জন, পেনসেলভেনিয়ায় ১৭৩৬ জন, ক্যালিফোর্নিয়ায় ১৫৯৪ জন।