ঢাকা ০১:৩৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স’র নতুন কমিটির পরিচিতি ও ইফতার প্যারিসে ‘নকশী বাংলা ফাউন্ডেশন সম্মাননা’ পেলেন ফ্রান্স দর্পণ নির্বাহী সম্পাদক ফেরদৌস করিম আখঞ্জী নানা আয়োজনে প্যারিসে সাফের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন ‘পাঠশালা’ – ফরাসী ভাষা শিক্ষার স্কুল উদ্বোধন

ভারতের চেয়ে ৪৭ শতাংশ বেশি দামে টিকা কিনছে বাংলাদেশ

  • আপডেট সময় ০২:৩৩:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০২১
  • ১০৮ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

সোমবার (১১ জানুয়ারি) রয়টার্স জানায়, সেরাম বাংলাদেশের কাছে প্রতিডোজ টিকা বিক্রি করবে ৪ ডলার দামে। ভারত সরকার যে দামে কিনছে সেরাম সেই টিকা বাংলাদেশের কাছে ৪৭ শতাংশ বেশি দামে বিক্রি করবে। নভেম্বরে সেরামের সঙ্গে ওই চুক্তি করে বাংলাদেশ। সোমবার বাংলাদেশের একজন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, সেরামের উৎপাদিত টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম চালান এ মাসের ২৫ তারিখের মধ্যে পাওয়া যাবে। আগামী মাসের শুরুতে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

একটি সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে, বাংলাদেশের জন্য প্রতিডোজ টিকার মূল্য ৩ ডলারের মধ্যে রাখা উচিৎ ছিল। তবে তিনি বিস্তারিত জানাননি। বাংলাদেশ সরকারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে কেউ নাম প্রকাশ করতে চাননি। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং স্বাস্থ্য সচিব এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।সেরাম ৫ কোটি ডোজ টিকার মজুদ করেছে। ভারত সরকারের কাছে ১ কোটি ১০ লাখ ডোজ বিক্রির চুক্তি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সেখানে প্রতিডোজ টিকার দাম ধরা হয়েছে ২ দশমিক ৭২ ডলার বা ২০০ রুপি। আর বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করছে ৪ ডলারে। যা ভারতের দামে দেড়গুণের বেশি।১৩৫ কোটি জনসংখ্যার ভারতের টিকার ব্যাপক চাহিদা থাকায় দাম কম ধরা হয়েছে বলে জানায় সেরাম। ইতোমধ্যে দেশটির কর্তৃপক্ষ কোভিশিল্ডের টিকার জরুরি অনুমোদন দিয়েছে।অ্যাস্ট্রাজেনেকা, গেটস ফাউন্ডেশন এবং জাভি ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্সের সহযোগিতায় সেরাম একশ’ কোটি ডোজের বেশি টিকা নিম্ন আয়ের দেশগুলোর জন্য সরবরাহ করবে।বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ৫ লাখ ২৩ হাজারের বেশি মানুষের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে ৭ হাজার ৮০৩ জন।

সূত্র সময় নিউজ

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন

ভারতের চেয়ে ৪৭ শতাংশ বেশি দামে টিকা কিনছে বাংলাদেশ

আপডেট সময় ০২:৩৩:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ জানুয়ারী ২০২১

সোমবার (১১ জানুয়ারি) রয়টার্স জানায়, সেরাম বাংলাদেশের কাছে প্রতিডোজ টিকা বিক্রি করবে ৪ ডলার দামে। ভারত সরকার যে দামে কিনছে সেরাম সেই টিকা বাংলাদেশের কাছে ৪৭ শতাংশ বেশি দামে বিক্রি করবে। নভেম্বরে সেরামের সঙ্গে ওই চুক্তি করে বাংলাদেশ। সোমবার বাংলাদেশের একজন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানান, সেরামের উৎপাদিত টিকা কোভিশিল্ডের প্রথম চালান এ মাসের ২৫ তারিখের মধ্যে পাওয়া যাবে। আগামী মাসের শুরুতে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

একটি সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে, বাংলাদেশের জন্য প্রতিডোজ টিকার মূল্য ৩ ডলারের মধ্যে রাখা উচিৎ ছিল। তবে তিনি বিস্তারিত জানাননি। বাংলাদেশ সরকারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে কেউ নাম প্রকাশ করতে চাননি। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং স্বাস্থ্য সচিব এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি।সেরাম ৫ কোটি ডোজ টিকার মজুদ করেছে। ভারত সরকারের কাছে ১ কোটি ১০ লাখ ডোজ বিক্রির চুক্তি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সেখানে প্রতিডোজ টিকার দাম ধরা হয়েছে ২ দশমিক ৭২ ডলার বা ২০০ রুপি। আর বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করছে ৪ ডলারে। যা ভারতের দামে দেড়গুণের বেশি।১৩৫ কোটি জনসংখ্যার ভারতের টিকার ব্যাপক চাহিদা থাকায় দাম কম ধরা হয়েছে বলে জানায় সেরাম। ইতোমধ্যে দেশটির কর্তৃপক্ষ কোভিশিল্ডের টিকার জরুরি অনুমোদন দিয়েছে।অ্যাস্ট্রাজেনেকা, গেটস ফাউন্ডেশন এবং জাভি ভ্যাকসিন অ্যালায়েন্সের সহযোগিতায় সেরাম একশ’ কোটি ডোজের বেশি টিকা নিম্ন আয়ের দেশগুলোর জন্য সরবরাহ করবে।বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ৫ লাখ ২৩ হাজারের বেশি মানুষের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছে ৭ হাজার ৮০৩ জন।

সূত্র সময় নিউজ