ঢাকা ১০:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন তরুণ সাহিত্যিক সাদাত হোসাইনকে প্যারিসে সংবর্ধনা দিলো ফ্রান্সপ্রবাসী বাংলাদেশীরা গাজীপুর জেলা সমিতি,ফ্রান্স’র দ্বি বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত : ফারুক খান সভাপতি, জুয়েল সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত কেবল উপবাসের নামই সিয়াম নয়, প্রকৃত মানুষ হওয়ার শিক্ষাই সিয়াম ফ্রান্সে একটি সর্বজন গ্রহণযোগ্য ‘বাংলাদেশ সমিতি’র তাগিদ, একটি প্রস্তাবনা শিশু কিশোরদের নানা ইভেন্ট নিয়ে ইপিএস কমিউনিটি ফ্রান্সের স্বাধীনতা দিবস পালন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ফ্রান্স’র নতুন কমিটির পরিচিতি ও ইফতার প্যারিসে ‘নকশী বাংলা ফাউন্ডেশন সম্মাননা’ পেলেন ফ্রান্স দর্পণ নির্বাহী সম্পাদক ফেরদৌস করিম আখঞ্জী নানা আয়োজনে প্যারিসে সাফের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন ‘পাঠশালা’ – ফরাসী ভাষা শিক্ষার স্কুল উদ্বোধন

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিন- সু চির প্রতি করবিন

  • আপডেট সময় ০৯:১৩:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯
  • ৭৬ বার পড়া হয়েছে

Warning: Attempt to read property "post_excerpt" on null in /home/u305720254/domains/francedorpan.com/public_html/wp-content/themes/newspaper-pro/template-parts/common/single_two.php on line 117

ব্রিটেনে প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন মায়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির উদ্দেশ্যে আবেদন জানিয়েছেন রোহিঙ্গাদের প্রতি আচরণে তিনি যেন মানবাধিকারের প্রতি তার অঙ্গীকারের প্রতিফলন দেখান।

এক সাক্ষাৎকারে করবিন বলেছেন ‘আমরা ম্যাডাম অং সান সু চির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তার উদ্দেশ্যে আমার বার্তা হলো- আমরা আপনাকে পছন্দ করি- বহু বছর আপনি যখন গৃহবন্দী ছিলেন আমরা আপনাকে সমর্থন করেছি। আমরা আপনার সমর্থনে মিছিল করেছি, মানবাধিকারের প্রতি আপনার অঙ্গীকারকে আমরা স্বীকৃতি দিয়েছি।’ খবর বিবিসির।

সু চিকে উদ্দেশ্য করে দেয়া এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন ‘বর্তমানে রোহিঙ্গা জনগণের প্রতিও সেই মানবাধিকারের প্রতিশ্রুতি তুলে ধরুন। তারা যাতে মায়ানমারের ভেতর পূর্ণ নাগরিকত্ব পায় সেটা নিশ্চিত করুন। তাদের নিজের দেশ থেকে তাদের জায়গাজমি আর ঘরছাড়া যাতে না করা হয় সেটা নিশ্চিত করুন।’

মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা ও হত্যাযজ্ঞ থেকে প্রাণ বাঁচাতে হাজার হাজার সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমান নারী, পুরুষ ও শিশু দেশ ছেড়ে পালিয়েছে।

রাখাইন থেকে ফিরে সংবাদদাতা বলেছেন তিনি দেখেছেন স্থানীয় রাখাইন যুবকরা জগভর্তি পেট্রল ঢেলে মুসলিমদের গ্রামগুলো পুড়িয়ে দিচ্ছে।

রাখাইনের ভেতর ওই সাংবাদিককে ঘোরাফেরা করতে হয়েছে রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষের সাথে সাথে।

কিন্তু রাখাইন থেকে ফিরে আসার পর তিনি বলেছেন তিনি দেখেছেন বিস্তীর্ণ এলাকা জনশূণ্য- চারিদিকে পোড়া ক্ষেত এবং ফেলে যাওয়া গবাদি পশু।

সর্বসাম্প্রতিক সহিংসতা শুরু হয় যখন স্থানীয় কিছু রোহিঙ্গা মুসলমানের তিরিশটি পুলিশ স্টেশনের ওপর হামলা চালানোর জবাবে সেনাবাহিনী ব্যাপক প্রতিশোধ অভিযান চালায়।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী গত প্রায় দু’ সপ্তাহে দেড় লাখের বেশি রোহিঙ্গা মায়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্রান্সে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

যুক্তরাজ্যে করোনার মধ্যেই শিশুদের মাঝে নতুন রোগের হানা

প্যারিসে Point d’Aide – এইড পয়েন্ট এর নতুন অফিসের উদ্বোধন

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিন- সু চির প্রতি করবিন

আপডেট সময় ০৯:১৩:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯

ব্রিটেনে প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিন মায়ানমারের নেত্রী অং সান সু চির উদ্দেশ্যে আবেদন জানিয়েছেন রোহিঙ্গাদের প্রতি আচরণে তিনি যেন মানবাধিকারের প্রতি তার অঙ্গীকারের প্রতিফলন দেখান।

এক সাক্ষাৎকারে করবিন বলেছেন ‘আমরা ম্যাডাম অং সান সু চির প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তার উদ্দেশ্যে আমার বার্তা হলো- আমরা আপনাকে পছন্দ করি- বহু বছর আপনি যখন গৃহবন্দী ছিলেন আমরা আপনাকে সমর্থন করেছি। আমরা আপনার সমর্থনে মিছিল করেছি, মানবাধিকারের প্রতি আপনার অঙ্গীকারকে আমরা স্বীকৃতি দিয়েছি।’ খবর বিবিসির।

সু চিকে উদ্দেশ্য করে দেয়া এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেছেন ‘বর্তমানে রোহিঙ্গা জনগণের প্রতিও সেই মানবাধিকারের প্রতিশ্রুতি তুলে ধরুন। তারা যাতে মায়ানমারের ভেতর পূর্ণ নাগরিকত্ব পায় সেটা নিশ্চিত করুন। তাদের নিজের দেশ থেকে তাদের জায়গাজমি আর ঘরছাড়া যাতে না করা হয় সেটা নিশ্চিত করুন।’

মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সহিংসতা ও হত্যাযজ্ঞ থেকে প্রাণ বাঁচাতে হাজার হাজার সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমান নারী, পুরুষ ও শিশু দেশ ছেড়ে পালিয়েছে।

রাখাইন থেকে ফিরে সংবাদদাতা বলেছেন তিনি দেখেছেন স্থানীয় রাখাইন যুবকরা জগভর্তি পেট্রল ঢেলে মুসলিমদের গ্রামগুলো পুড়িয়ে দিচ্ছে।

রাখাইনের ভেতর ওই সাংবাদিককে ঘোরাফেরা করতে হয়েছে রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষের সাথে সাথে।

কিন্তু রাখাইন থেকে ফিরে আসার পর তিনি বলেছেন তিনি দেখেছেন বিস্তীর্ণ এলাকা জনশূণ্য- চারিদিকে পোড়া ক্ষেত এবং ফেলে যাওয়া গবাদি পশু।

সর্বসাম্প্রতিক সহিংসতা শুরু হয় যখন স্থানীয় কিছু রোহিঙ্গা মুসলমানের তিরিশটি পুলিশ স্টেশনের ওপর হামলা চালানোর জবাবে সেনাবাহিনী ব্যাপক প্রতিশোধ অভিযান চালায়।

জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী গত প্রায় দু’ সপ্তাহে দেড় লাখের বেশি রোহিঙ্গা মায়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।